• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • চোর সন্দেহে বেল্ট দিয়ে বেঁধে প্রহার, মৃত দলিত সাফাইকর্মী

চোর সন্দেহে বেল্ট দিয়ে বেঁধে প্রহার, মৃত দলিত সাফাইকর্মী

Photo: Twitter

Photo: Twitter

ফের গুজরাত ৷ আবারও আমানবিকতার নজির ৷ চোর সন্দেহে গণপ্রহারে মৃত্যু হল দলিত সাফাইকর্মীর ৷ ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৷

  • Share this:

    #গুজরাত: ফের গুজরাত ৷ আবারও আমানবিকতার নজির ৷ চোর সন্দেহে গণপ্রহারে মৃত্যু হল দলিত সাফাইকর্মীর ৷ ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৷ সম্প্রতি একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়ালে ৷ সেখানে দেখা যাচ্ছে এক ব্যাক্তিকে কোনও এক কারখানার গেটে বেল্ট দিয়ে বেঁধে বেধড়ক প্রহার করা হচ্ছে ৷ বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও কেউ কর্ণপাত করছে না তাঁর কথায় ৷

    অমানবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজকোটের কাছে শাপার-ভেরাভাল শিল্পাঞ্চলে ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত যুবকের নাম মুকেশ বানিয়া (৩৫)। তিনি স্ত্রীর সঙ্গে একটি কারখানার কাছে আবর্জনা কুড়োচ্ছিলেন। সেই সময়ই চোর বলে সন্দেহ করা হয় ওই দম্পতিকে ৷ কারখানার ম্যানেজারের নির্দেশে বেঁধে পেটানো হয় মুকেশকে ৷ বেধড়ক মারা হয় মুকেশের স্ত্রীকেও ৷ গুরুতর জখম অবস্থায় মুকেশকে হাসপাতলে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন ৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসা চলছে মুকেশের স্ত্রীর ৷ পুরো ঘটনার ভিডিওটি ট্যুইটারে পোস্ট করেন গুজরাতের বিধায়ক জিগনেশ মেওয়ানি ৷ এই ঘটনাকে ‘উনা কাণ্ড’-এর থেকেও নৃশংস বলে উল্লেখ করেন জিগনেশ ৷ ২০১৬ সালে গুজরাতের উনায় গোহত্যার অভিযোগে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারা হয়েছিল এক দলিত যুবককে ৷ অভিযুক্ত তিনজনকে এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছিল ৷
    First published: