পুলিশের বেস্ট বয়!‌ ৩৬৫ কেসের সামাধান করে প্রয়াত হল মহারাষ্ট্রের ‘‌রকি’

পুলিশের বেস্ট বয়!‌ ৩৬৫ কেসের সামাধান করে প্রয়াত হল মহারাষ্ট্রের ‘‌রকি’

মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখও তাঁর বয়ানে রকিকে শেষ বিদায় জানিয়েছেন।

মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখও তাঁর বয়ানে রকিকে শেষ বিদায় জানিয়েছেন।

  • Share this:

    #‌মুম্বই:‌ বিচক্ষণ, এবং শারিরীক শক্তিতে সেরা। মহারাষ্ট্রের পুলিশ কুকুর রকির ওপর ভরসা ছিল গোটা পুলিশ বিভাগেরই। সেই রকিই হইলোক ত্যাগ করে চলে গেল। রবিবার ১৬ অগাস্ট রকির মৃত্যু হয়েছে। রকি মোট ৪৬৫টি কেসে পুলিশ কুকুর হিসাবে অপরাধীকে ধরিয়ে দেওয়ার কাজ করেছে। তাঁর সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরেই পুলিশের পক্ষ থেকে মৃত রকির যথাযোগ্য সম্মানের সঙ্গে শেষকৃত্য করেছে পুলিশ।

    পুলিশের পক্ষ থেকে একটি ফেসবুক পোস্ট করে বলা হয়েছে, ‘‌আজ (‌রবিবার)‌ বিকেল চারটের সময় আমাদের দীর্ঘদিনের সঙ্গী রকির মত্যু হয়েছে। দীর্ঘকালীন রোগভোগের পর তার মৃত্যু হয়েছে আজ। সে সারা জীবনে মোট ৩৬৫টি কেসে অপরাধীকে ধরিয়ে দিতে সাহায্য করেছে। বিড পুলিশ পরিবার রকির মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত। আমরা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ কুকুরটিকে যথাযোগ্য সম্মানের সঙ্গে শেষ বিদায় জানিয়েছি।’‌ এই লেখার পাশাপাশি পুলিশের পক্ষ থেকে রকির একাধিক ছবিও শেয়ার করা হয়েছে।

    মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখও তাঁর বয়ানে রকিকে শেষ বিদায় জানিয়েছেন। দেশের প্রতি ও পুলিশের প্রতি রকির কর্তব্য পালনের উদাহরণ টেনে তিনি একাধিক ট্যুইট করেছেন। তাঁর লেখার নাম দিয়েছেন ‘‌আলবিদা রকি। গতকাল বিড থানার রকি নামে পুলিশ কুকুরটির অকাল মৃত্যু হয়েছে। দীর্ঘদিন রোগ ভোগের পর সে মারা গিয়েছে। আমার হৃদয়ের ভালবাসা রইল রকির জন্য। জঙ্গি হামলা থেকে বোমা নিষ্ক্রিয় করা বা অন্য কোনও অপরাধ দমন করা, এই সবেতেই মহারাষ্ট্র পুলিশের ডগ স্কোয়াড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাঁরা হাজার হাজার মানুষকে বাঁচায়। যেমন রকি, এখনও পর্যন্ত ৩৬৫টি কেসের সমাধান করেছে সে।’‌

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published:

    লেটেস্ট খবর