corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্কুলে চলছে অনলাইন ক্লাস, স্মার্টফোন না থাকায় অবসাদে আত্মঘাতী ছাত্রী

স্কুলে চলছে অনলাইন ক্লাস, স্মার্টফোন না থাকায় অবসাদে আত্মঘাতী ছাত্রী
Representative Image

পঞ্জাবে গরিব পরিবারের এক ছাত্রী স্কুলে অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে আত্মঘাতী হল৷ দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর স্মার্টফোন ছিল না৷ ফলে ক্লাস করতে পারছিল না৷ অবসাদে, দুঃখে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে সে৷

  • Share this:

#চণ্ডীগড়: লকডাউনের জেরে দেশের বেশির ভাগ স্কুলেই ক্লাস হচ্ছে অনলাইনে৷ সে ক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের সেই ক্লাস করতে গেলে বাড়িতে অনলাইন থাকার সব রকম ব্যবস্থা থাকা আবশ্যিক৷ কিন্তু বহু গরিব পরিবারের নুন আনতে পান্তা ফুরোয় দশা ভারতে৷ স্মার্টফোন তো অনেক দূরের জিনিস! সে রকমই পঞ্জাবে গরিব পরিবারের এক ছাত্রী স্কুলে অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে আত্মঘাতী হল৷ দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর স্মার্টফোন ছিল না৷ ফলে ক্লাস করতে পারছিল না৷ অবসাদে, দুঃখে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে সে৷

পঞ্জাবের মানসা জেলার ঘটনা৷ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আত্মঘাতী ছাত্রীর বাবা পেশায় খেত মজুর৷ বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই বাবার কাছে সে স্মার্টফোন কিনে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করে৷ কিন্তু পরিবারের আর্থিক অবস্থা এতটাই শোচনীয় যে, মেয়েকে স্মার্টফোন কিনে দিতে পারেননি বাবা৷ মেয়েটির বাবা জগশীর সিং-এর কথায়, 'আমার মেয়ে খুব কষ্টে ছিল৷ খুব চাপে থাকত৷ আমি ওকে স্মার্টফোন কিনে দিতে পারিনি৷ চেষ্টা করেছিলাম৷ আমি সামান্য খেত মজুর৷ স্মার্টফোন কেনার টাকা নেই৷ ও নিজেকে শেষ করে দিল৷'

গত ফেব্রুয়ারি মাসে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং জানিয়েছিলেন, তিনি যুবক-যুবতীদের মধ্যে স্মার্টফোন বিলি করার প্রতিশ্রুতি রাখতে পারছেন না৷ কারণ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ৷

চলতি মাসেরই শুরুতে কেরলের মলপ্পুরম জেলায় একই ভাবে স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইন ক্লাস করতে না-পেরে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করে৷

Published by: Arindam Gupta
First published: June 8, 2020, 10:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर