corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিধান চন্দ্র রায়কে সম্মান জানাতে মূর্তি বসছে কালনা মহকুমা হাসপাতালে

বিধান চন্দ্র রায়কে সম্মান জানাতে মূর্তি বসছে কালনা মহকুমা হাসপাতালে

জেলাজুড়ে বিভিন্ন হাসপাতাল ও সরকারি দফতরের সংলগ্ন জায়গায় ভেষজ উদ্যান করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সদস্যরা

  • Share this:

#কালনা: ডাক্তার বিধানচন্দ্র রায়ের আবক্ষ মূর্তি বসছে পূর্ব বর্ধমানের  কালনা মহকুমা হাসপাতালে। আগামী পয়লা জুলাই প্রবাদপ্রতিম চিকিৎসক বিধানচন্দ্র রায়ের জন্ম মৃত্যু দিন উপলক্ষে এই মূর্তি হাসপাতাল চত্বরে প্রতিষ্ঠা করা হবে। তার আগে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে সেই মুর্তি তুলে দিলেন এলাকার বাসিন্দা তথা প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। একই সঙ্গে কালনা মহকুমা হাসপাতালের ভেষজ উদ্যানে বেশ কিছু ঔষধি গাছ লাগানো হল।

কালনা মহকুমা হাসপাতালে ডাক্তার বিধানচন্দ্র রায়ের আবক্ষ মূর্তি বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল আগেই। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী পয়লা জুলাই সেই মূর্তি বসানো হতে চলেছে। এদিন হাসপাতলের কোন জায়গায় সেই মূর্তি বসানো হবে তা পরিদর্শন করেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। তিনি জানান, মূর্তি বসানোর পাশাপাশি তার আশপাশ এলাকায় সৌন্দর্যায়ন ঘটানো হবে।

একই সঙ্গে এই হাসপাতালে এক একরেরও বেশি জায়গায় ভেষজ উদ্যান তৈরি করার কাজ শুরু হয়েছে। সপ্তাহ খানেক আগেই সেই উদ্যানে শতাধিক তুলসী গাছ লাগিয়ে ছিল প্রকৃতি ও পশুপ্রেমী সংস্থা। এদিন নতুন করে আরও শতাধিক গাছ লাগানো হয়। প্রকৃতি ও পশুপ্রেমী সংস্থার সদস্যরা জানান, তুলসী গাছের ঔষধি গুন প্রচুর। তুলসী পাতার রস দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।তাছাড়া প্রচুর অক্সিজেন দান করে এই গাছ। যে কারণে তুলসী গাছকে অক্সিজেন সিলিন্ডারও বলা হয়ে থাকে। সেই তুলসী গাছ আগেই লাগানো হয়েছে। এদিন নতুন করে কালমেঘ ঘৃতকুমারী বাসক সহ বেশকিছু ভেষজ গাছ রোপণ করা হল।

এভাবেই জেলাজুড়ে বিভিন্ন হাসপাতাল ও সরকারি দফতরের সংলগ্ন জায়গায় ভেষজ উদ্যান করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সদস্যরা। তাঁরা বলছেন, ভেষজ উদ্ভিদের গুনাগুন প্রচুর। রোগ অনুযায়ী সঠিক মাত্রায় গ্রহণ করা গেলে সেই রোগ থেকে সহজেই মুক্তি মিলবে। বাজারে ওষুধের দাম দিন দিন বাড়ছে। তাছাড়া সেইসব ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও রয়েছে। ঔষধি গাছে সহজেই রোগ নিরাময় হয়। পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও নাই। আবার তার দামও অনেক কম। তাই সাধারণ মানুষের মধ্যে ভেষজ গাছের প্রতি আগ্রহ বাড়াতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

Saradindu Ghosh

Published by: Debalina Datta
First published: June 29, 2020, 7:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर