Sharad Pawar hospitalised: পেটে প্রচন্ড ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি শরদ পাওয়ার, হবে অস্ত্রোপচার

Sharad Pawar hospitalised: পেটে প্রচন্ড ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি শরদ পাওয়ার, হবে অস্ত্রোপচার

অসুস্থ শরদ পাওযার | Sharad Hospitalized

বুধবার তাঁর অস্ত্রোপচার হবে বলে জানানো হয়েছে৷ আপাতত তাঁর সব কর্মসূচী বন্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে৷

  • Share this:

    #মুম্বই: অসুস্থ এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার৷ রবিবার সন্ধেবেলা পেটে ব্যথা অনুভব করায় তাঁকে মুম্বইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ পাওয়ারের অসুস্থ হওয়ার খবরটি সোমরার জানিয়েছেন এনসিপি পার্টির নেতা নওয়াব মালিক৷

    তিনি জানিয়েছেন যে, "আমাদের দলনেতা শরদ পাওয়ার সাহেব গতকাল সন্ধেবেলা পেটে অস্বস্তি অনুভব করেন৷ তড়িঘড়ি তাঁকে ব্রিচক্যান্ডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানে প্রথমিক চিকিৎসার পর জানা গিয়েছে তাঁর গলব্লাডারে সমস্যা রয়েছে"৷ ট্যুইটে জানান নওয়াব মালিক৷ বুধবার তাঁর অস্ত্রোপচার হবে বলে জানানো হয়েছে৷ আপাতত তাঁর সব কর্মসূচী বন্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে৷

    শরীরের সঠিকভাবে রক্ত চলাচল করা এবং রক্ত জমাট না বাঁধার জন্য (Blood Thinning Medication) নিয়মিত ওষুধ খেতে হয় শরদ পাওয়ারকে৷ তবে এখন এই সংক্রান্ত সব ওষুধ ও চিকিৎসা পদ্ধতি বন্ধ থাকবে তাঁর৷ ৩১ মার্চ ২০২১ তাঁকে হাসপাতালে পুনরায় ভর্তি করা হবে৷ এন্ডোস্কপি হবে, তারপর অস্ত্রোপচার হবে৷ তাঁর পরবর্তী সব কর্মসূচী আপাতত বাতিল করা হয়েছে৷ জানান মালিক৷

    আহমেদাবাদে অমিত শাহের সঙ্গে শরদ পাওয়ারের এক বৈঠক রয়েছে, এমন জল্পনা চলছিল৷ যদিও কোনও পক্ষই এই বিষয় নিয়ে স্পষ্ট বক্তব্য রাখেনি৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যেমন জানিয়ে দেন যে, সব কিছু খুলে বলা সম্ভব নয়৷ তেমন এনসিপির পক্ষ থেকে বৈঠকের জল্পনা উড়িয়ে দেওয়া হয়৷ জানানো হয় যে এমন কোনও সম্ভাবনাই নেই৷

    অন্যদিকে তৃণমূলের হয়ে বাংলায় প্রচারে আসার কথা ছিল শরদের৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ বন্ধুত্ব৷ সেই সুবাদেই মমতার হয়ে প্রচারে আসার কথা ছিল শরদে৷ আগামী ১ এপ্রিল রাজ্যে পা রাখার কথা ছিল শরদ পাওয়ারের। দু’দিন ব্যাপি সেই প্রচার চলত বলে খবর৷ এই ৭২ ঘন্টার বেশির ভাগটাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচারে সময় দেওয়ার কথা ছিল বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ। কিন্তু শারীরিক অসুস্থতার কারণে এখন তিনি কোনও কর্মসূচীতেই থাকতে পারবেন না৷

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    লেটেস্ট খবর