corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিচারপতি লোয়ার মৃত্যুর জনস্বার্থ মামলার সাপেক্ষে পুনরায় তদন্ত নিষ্প্রয়োজন : সুপ্রিম কোর্ট

বিচারপতি লোয়ার মৃত্যুর জনস্বার্থ মামলার সাপেক্ষে পুনরায় তদন্ত নিষ্প্রয়োজন : সুপ্রিম কোর্ট
Supreme Court

বিচারপতি বিএইচ লোয়ার মৃত্যুতে নতুন করে কোনও তদন্ত নিষ্প্রয়োজন ৷ লোয়ার মৃত্যুর তদন্তের সমস্ত মামলা খারিজ করেই এহেন মন্তব্য করে দেশের সর্বোচ্চ আদালত ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিচারপতি বিএইচ লোয়ার মৃত্যুতে নতুন করে কোনও তদন্ত নিষ্প্রয়োজন ৷ লোয়ার মৃত্যুর তদন্তের সমস্ত মামলা খারিজ করেই এহেন মন্তব্য করে দেশের সর্বোচ্চ আদালত ৷

আরও পড়ুন: বাবা কোটিপতি হিরে ব্যবসায়ী, সন্ন্যাস নিল ১২ বছরের ছেলে !

সোহরাবুদ্দিন শেখ ভুয়ো এনকাউন্টার মামলার বিচারের সময় বিচারপতি বিএইচ লোয়ার মৃত্যু হয় ৷ সেই মৃত্যু তদন্তের জন্য বেশ কয়েকটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে সিট ৷ এই জনস্বার্থ মামলারই আবেদন খারিজ করে সুপ্রিম কোর্ট ৷ বিচারব্যবস্থার বদনাম করতেই সিট এহেন মামলা দায়ের করেছে বলে মত আদালতের ৷ এই মামলায় নাম জড়িয়েছিল বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, রাজস্থানের গৃহমন্ত্রী গুলাবচন্দ কাটারিয়া, গুজরাতের প্রাক্তন পুলিশ অফিসারসহ আরও অনেকে ৷ তবে, বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ তাঁদের এই মামলা থেকে রেহাই দেয় অনেক আগেই ৷

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র’র নেতৃত্বে গঠিত তিন সদস্যের বেঞ্চ এই পিটিশন খারিজ করে দেয়৷ সুপ্রিম কোর্টের রায়ে স্বস্তির নিশ্বাস গেরুয়া শিবিরে ৷ কারণ কংগ্রেসসহ বিরোধী দলগুলোই লোয়ার মৃত্যুর তদন্তের দাবি করে ৷

আরও পড়ুন:‘‘ দেশ আমার, সরকার আমার ...উন্নয়নকে জন আন্দোলনের রূপ দিতে চাই ’’ : প্রধানমন্ত্রী

২০১৪ সালে এক সহকর্মীর মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে মৃত্যু হয় লোয়ার ৷ প্রাথমিকভাবে জানা যায়, হৃদরোগে আক্রান্ত করে মৃত্যু হয়েছে তাঁর ৷ এমনকী, সেই মৃত্যুর ঘটনাটিকে একেবারেই স্বাভাবিক বলে জানায় সুপ্রিম কোর্টও ৷ কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের সেই রায়ের বিরোধিতা করেই ফের জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে সিট ৷ সেই মামলা খারিজ করে আদালত পিটিশনারদের প্রতি ক্ষোভপ্রকাশ করে ৷ সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, এই মামলার কোনও ভিত্তি নেই ৷ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতেই এই মামলা দায়ের বলে মন্তব্য় করেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র ৷

First published: April 19, 2018, 1:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर