Home /News /national /
Santanu Sen || সংসদীয় কমিটির বৈঠকে কেন্দ্রীয় সরকারকে কটাক্ষ তৃণমূল সাংসদের

Santanu Sen || সংসদীয় কমিটির বৈঠকে কেন্দ্রীয় সরকারকে কটাক্ষ তৃণমূল সাংসদের

Santanu Sen || কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ, আইসি এম আরের অধিকর্তা বলরাম ভারগাভ এবং ডাইরেক্টর জেনারেল অফ হেলথ সার্ভিস অতুল গোয়েল এর উপস্থিতিতে শান্তনু শাহীন বলেন দেশে ঢাকঢোল পিটিয়ে ২২টি এআইআইএমএস হাসপাতাল চালু করা হলেও ক্যানসার পরিষেবা রয়েছে মাত্র ৬টি হাসপাতালে৷

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#নয়াদিল্লি:  ক্যানসার সংক্রান্ত আলোচনায় কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সংসদ তথা চিকিৎসক শান্তনু সেন। আজ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ক্যানসার নিয়ে আলোচনা হয়। সূত্রের খবর, সেই বৈঠকেই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তোলেন তিনি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ, আইসি এম আরের অধিকর্তা বলরাম ভারগাভ এবং ডাইরেক্টর জেনারেল অফ হেলথ সার্ভিস অতুল গোয়েল এর উপস্থিতিতে শান্তনু শাহীন বলেন দেশে ঢাকঢোল পিটিয়ে ২২ টি এআই আই এমএস হাসপাতাল চালু করা হলেও ক্যান্সার পরিসেবা রয়েছে মাত্র ৬টি হাসপাতালে?

সূত্রের খবর, এদিনের বৈঠকে শান্তনু সেন বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সারাদেশে ৭৫টি মেডিক্যাল কলেজের কথা বলা হলেও কেন্দ্রের অধীনে থাকা মাত্র ১৩টিতে ক্যানসারের চিকিৎসা পরিষেবা পাওয়া যায়। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে চিকিৎসক-সাংসদ শান্তনু আরও জানিয়েছেন, কলকাতার চিত্তরঞ্জন জাতীয় ক্যানসার হাসপাতালের প্রথম ক্যাম্পাসে অসহযোগিতা করা হচ্ছে। কেন্দ্রের অসহযোগিতার কারণে ধীরে ধীরে প্রতিষ্ঠানটি দুর্বল হয়ে পড়ছে বলে অভিযোগ করেন শান্তনু সেন। তিনি বলেন, নামমাত্র কয়েকটি জায়গা ছাড়া কেন্দ্রীয় সরকারের কোনও স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানেই পেট-স্ক্যান হয় না।

অভিযোগ আরও ওঠে৷ এগারোশো জীবনদায়ী ওষুধের দাম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ানো হয়েছে ক্যানসারের ওষুধের দাম। এর ফলে সাধারণ মানুষ চিকিৎসা না করেই মৃত্যুর দিকে ঢলে পড়ছে বলে অভিযোগ করেন শান্তনু সেন। তার দাবি কেন্দ্রীয় সরকারের যে সমস্ত হাসপাতালে ভর্তুকির কথা বলা হচ্ছে সেগুলোতে নামমাত্র ভর্তুকি দেয়া হয় কেন্দ্রের তরফে। অবিলম্বে ক্যানসারকে গুরুত্বপূর্ণ রোগ বলে চিহ্নিত করার দাবি তোলেন তিনি। তথ্য তুলে ধরে তিনি দাবি করেন উত্তর-পূর্ব ভারতে ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

আরও পড়ুন: এতকাল ধরে বিদ্যুৎ নেই রাষ্ট্রপতি প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মুর গ্রামে! ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিদ্যুতায়নের নির্দেশ

শুধু ক্যানসার নয় শান্তনু খানের অভিযোগ অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ফিজিওথেরাপি এবং কাউন্সেলিংয়ের বিষয়ক সম্পূর্ণ উদাসীন কেন্দ্রীয় সরকার। এদিনের বৈঠকে তিনি জানান, ভারতে যেভাবে ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তাতেই প্রতিবছর ১২ শতাংশ হারে ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে। তিনি দাবি করেছেন ক্যানসার আক্রান্তের সংখ্যা লাগাম টানতে যে অর্থ বরাদ্দের প্রয়োজন সামান্য স্বাস্থ্য বাজেট দিয়ে তা কোনওদিনই পূরণ করা সম্ভব নয়। পশ্চিমবঙ্গে ক্যানসারের চিকিৎসা পরিষেবার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করা হয় বলে তথ্য দিয়ে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে দাবি করেন রাজ্যসভার সাংসদ এবং চিকিৎসক শান্তনু সেন।

Published by:Rachana Majumder
First published:

Tags: Santanu Sen

পরবর্তী খবর