JNU Violence: JNU-হিংসার দায় বামপন্থীদের উপরেই চাপালেন রেজিস্ট্রার, ফের ফোন অমিত শাহের

JNU Violence: JNU-হিংসার দায় বামপন্থীদের উপরেই চাপালেন রেজিস্ট্রার, ফের ফোন অমিত শাহের
জেএনইউ-ের পাশে আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়

জেএনইউ-এর ঘটনা নিয়ে সোমবার একটি প্রেস বিবৃতি জারি করেন রেজিস্ট্রার প্রমোদ কুমার৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: জওহরাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনার দায় কার্যত বামপন্থী ছাত্র-ছাত্রীদের উপরেই চাপালেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার৷ অন্যদিকে দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে ফের ফোন করে জেএনইউ-র ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলার নির্দেশ দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷ এই নিয়ে কাল থেকে দু বার ফোন করলেন অমিত শাহ৷

জেএনইউ-এর ঘটনা নিয়ে সোমবার একটি প্রেস বিবৃতি জারি করেন রেজিস্ট্রার প্রমোদ কুমার৷ সেই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হস্টেল ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে জেএনইউ ক্যাম্পাসে লাগাতার তাণ্ডব চালাচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীরা৷ বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ার বিরোধী ছাত্র-ছাত্রীরা রেজিস্ট্রেশনে ইচ্ছুক পড়ুয়াদের বাধা দেয়৷ ৩ জানুয়ারি থেকে মুখ ঢেকে হামলা চালাচ্ছে আন্দোলনকারী ছাত্র-ছাত্রীরা৷ রেজিস্ট্রেশন অফিস ভাঙচুর করা হয়৷ তছনছ করা হয় কম্পিউটার, সার্ভার৷ ক্লাস করতেও বাধা দেয়৷ ৫ জানুয়ারি আন্দোলনকারীরা প্রথমে হস্টেলে হামলা চালায় নবাগতদের উপর৷ নিরাপত্তাকর্মীদেরও মারধর করা হয়৷ দু দলের ছাত্রদের সংঘর্ষ রুখতে পুলিশ ডাকে কর্তৃপক্ষ৷ পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়৷  

জেএনইউ-এর উপাচার্য ট্যুইট করেছেন, 'এই হিংসায় আহত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য মর্মাহত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ ক্যাম্পাসে যে কোনও হিংসার তীব্র নিন্দা করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷'

 

অন্যদিকে, দিল্লি পুলিশের দাবি, ঠিক সময়ে পদক্ষেপ করেছে পুলিশ৷ সব ফুটেজ সংগ্রহ করে তবেই তদন্ত করা হবে৷ বসন্তকুঞ্জ থানায় এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ৷ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এফআইআর দায়ের করেনি৷

সোমবার সকাল থেকেই জেএনইউ-তে কড়া নিরাপত্তা৷ ক্যাম্পাসের ১ নম্বর গেটে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে৷ ক্যাম্পাস চত্বরে জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা৷ ক্যাম্পাসের বাইরে জমায়েত করে প্রতিবাদ করছে পড়ুয়ারা৷

First published: 11:02:24 AM Jan 06, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर