• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • হানিপ্রীতের মুখও দেখতে চান না বাবা রাম রহিম !

হানিপ্রীতের মুখও দেখতে চান না বাবা রাম রহিম !

Ram rahim and honeypreet

Ram rahim and honeypreet

রাম রহিমকে গ্রেফতার করার পর থেকেই হানিপ্রীতকে নিয়ে জল্পনা ছিল তুঙ্গে ৷ পালিতা মেয়ে হানিপ্রীত বাবার সবচেয়ে কাছের মানুষ বলে মনে করা হয় ৷

  • Share this:

    #রোহতক: রাম রহিমকে গ্রেফতার করার পর থেকেই হানিপ্রীতকে নিয়ে জল্পনা ছিল তুঙ্গে ৷ পালিতা মেয়ে হানিপ্রীত বাবার সবচেয়ে কাছের মানুষ বলে মনে করা হয় ৷ ডেরা অনুগামীদের মধ্যে যথেষ্ট জনপ্রিয় ‘পাপার পরী’ হনিপ্রীত। কিন্তু রাম রহিমের সাজা ঘোষণার পর থেকেই খোঁজ মিলছে না হানিপ্রীতের ৷ তার বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস জারি করা হয়েছে ৷

    সম্প্রতি হানিপ্রীতের সই করা একটি চিঠি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ৷ এই চিঠিতে লেখা রয়েছে যে হানিপ্রীত একটি কনস্টেবলের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছে ৷ কনস্টেবলের নাম বিকাশ ৷ অগাস্ট২৫ তারিখে চিঠিটি লেখা হয়েছে ৷ এদিনেই রাম রহিমকে দোষী সাবস্ত করে আদালত ৷

    হেলিকপ্টারে করে জেলে নিয়ে যাওয়ার সময় রাম রহিমের পাশেই বসে ছিলেন হানিপ্রীত ৷ কিন্তু এরপর থেকেই তার আর কোনও খোঁজ মেলেনি ৷ তবে যে চিঠিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে তা আসলে হামিপ্রীতের কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে ৷ পুলিশ চিঠিটি ফেক বলে দাবি করেছে ৷ হানিপ্রীত যার সঙ্গে পালিয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে তার নাম ও ঠিকানা দেওয়া রয়েছে ৷ তাতেই সন্দেহ তৈরি হয়েছে ৷

    সূত্রের খবর, চিঠিটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকে হানিপ্রীতের নাম মুখে আনচ্ছেন না বাবা ৷ অথছ কয়েকদিন আগেই হানিপ্রীতকে নিজের কাছে রাখার আবেদন জনিয়েছিলেন রাম রহিম ৷ তার সঙ্গে দেখাও করতে চান না তিনি ৷ বিপদ বুঝে বিদেশে পালিয়ে গিয়েছে হানিপ্রীত বলে মনে করা হচ্ছে ৷ এরপর থেকেই কারাগরে বসে চিৎকার, কান্নাকাটির পর ধর্ষক বাবা রাম রহিম নাকি একা একাই কথা বলছেন দেওয়ালের সঙ্গে !

    তিন বছর ধরে টানা ধর্ষণ করেছিলেন স্বঘোষিত ধর্মগুরু। শাস্তি হিসাবে জেলে কাটাতে হবে ২০ বছর। দুই সাধ্বীকে ধর্ষণের দায়ে গুরমিত রাম রহিমকে ১০ বছর করে দুটি অপরাধে কারাদণ্ডের রায় দিল বিশেষ সিবিআই আদালত।

    First published: