• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ফের মুলায়মের বাড়িতে অখিলেশ, সপায় নতুন সমীকরণের ইঙ্গিত

ফের মুলায়মের বাড়িতে অখিলেশ, সপায় নতুন সমীকরণের ইঙ্গিত

কখনও রফার খোঁজ, কখনও কমিশনে দরবার। দুই পথই খোলা রাখল মুলায়ম ও অখিলেশ শিবির।

কখনও রফার খোঁজ, কখনও কমিশনে দরবার। দুই পথই খোলা রাখল মুলায়ম ও অখিলেশ শিবির।

কখনও রফার খোঁজ, কখনও কমিশনে দরবার। দুই পথই খোলা রাখল মুলায়ম ও অখিলেশ শিবির।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #লখনউ: কখনও রফার খোঁজ, কখনও কমিশনে দরবার। দুই পথই খোলা রাখল মুলায়ম ও অখিলেশ শিবির। আজ সাতসকালে মুলায়মকে ফোন করেন অখিলেশ। সন্ধির ইঙ্গিত পেয়েই দিল্লি থেকে লখনউ উড়ে যান তিনি। ছেলের সঙ্গে বৈঠকও হয়। একইসঙ্গে, নির্বাচন কমিশনে সাইকেল প্রতীক দখলের দাবি জানিয়ে যুদ্ধও জারি রাখল অখিলেশ শিবির।

    বিধানসভা নির্বাচন সামনে। কিন্তু, যাদবকুলে তুমুল নাটক চলছেই। দলে ফাটল স্পষ্ট হতেই দেখে সাইকেল প্রতীক দখলে উদ্যোগী হয় মুলায়ম শিবির। সোমবার, নির্বাচন কমিশনে গিয়ে মুলায়মের গোষ্ঠীকে সাইকেল প্রতীক দেওয়ার দাবি তোলেন শিবপাল যাদবরা। মঙ্গলবার সাইকেল রেসে সামিল অখিলেশ শিবিরও। রামগোপালের দাবি, দলে অখিলেশের পাল্লাই ভারী।

    সপার ভোট ভাগাভাগি হলে হাতছাড়া হবে সংখ্যালঘু ভোটব্যাঙ্ক। আর তাতে উত্তরপ্রদেশে সুযোগ নেবে বিজেপি। নতুন দল ও নতুন প্রতীক হলে ভরাডুবির সম্ভাবনাও দেখছে সপা নেতাদের একাংশ। তাই দু’পক্ষের মধ্যে চলছে রফাসূত্র খোঁজার পালাও।

    এর মধ্যেই মুলায়মের সই জাল করা হয়েছে বলে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন রাজ্যের সপা নেতা কিরণময় নন্দ। যদিও তা খারিজ করে দেওয়া হয়।

    নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী, কোনও প্রতীকের একাধিক দাবিদার থাকলে সব পক্ষকেই বক্তব্য রাখার জন্য সময় দেওয়া হয়। কিন্তু, উত্তরপ্রদেশে ভোট এসে যাওয়ায় সেই সময় কমিশনের হাতে নেই। তা বুঝেই কি সপা-য় সন্ধির দাবি জোরালো হচ্ছে?

    First published: