• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • মাইনাস ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ! কার্গিলের যুদ্ধে একসময় উত্তপ্ত দ্রাস এখন বরফের রাজ্য

মাইনাস ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ! কার্গিলের যুদ্ধে একসময় উত্তপ্ত দ্রাস এখন বরফের রাজ্য

Representational Image

Representational Image

মাইনাস ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কার্গিলের যুদ্ধে একসময় উত্তপ্ত দ্রাস এখন বরফের রাজ্য।

  • Share this:

    #কার্গিল: মাইনাস ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কার্গিলের যুদ্ধে একসময় উত্তপ্ত দ্রাস এখন বরফের রাজ্য। ডাল লেক-লেহকে হার মানিয়ে রুদ্রশ্বাসে নামছে এখানকার পারদ। জমে বরফ খাবার থেকে ওষুধ। জনজীবন বিপর্যস্ত বিশ্বের দ্বিতীয় শীতলতম অঞ্চলে।

    ১৯ বছর আগে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধে এভাবেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল জম্মু-কাশ্মীরের কার্গিল। ইতিহাস হয়ে আছে সেই সময়। হয়ত ইতিহাস গড়বে আজকের কার্গিলও।

    দ্রাস। কার্গিলের এই অঞ্চলের তাপমাত্রার পারদ নামতে নামতে ঠেকেছে মাইনাস পঁয়ত্রিশ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। বিশ্বের দ্বিতীয় শীতলতম জায়গায় কীভাবে দিন কাটছে সাধারণ মানুষের ? খোঁজ নিল নিউজ ১৮ বাংলা ৷

    যত উপরে ওঠা, ততই দুর্ভোগ। বরফের পুরু চাদরে ঢেকেছে রাস্তা। ভেঙে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। সমতল থেকে খাবার আসা প্রায় বন্ধ। মজুত রয়েছে সামান্য কিছু। তাতেই চলছে জনজীবন ৷

    পানীয় জলের অবস্থাও এরকমই। বরফ গলিয়ে কোনওরকমে চলে রান্নার কাজ। কোথাও বরফগলা জল পেলে বাড়ির মহিলারা পোশাক ধোয়ার কাজটা সেরে ফেলেন ঠিকই। কিন্তু তা শুকানোর কোনও উপায় নেই।

    বরফে ঢেকেছে হাসপাতাল। দোকানে ওষুধ মিলবে, তবে ট্যাবলেট-ক্যাপসুলেই কাজ সারতে হবে। কারণ তরল ওষুধ সবই জমে বরফ। ঠাণ্ডার জেরে প্রায় সব দিক থেকেই ভেঙে পড়েছে দ্রাসের জনজীবন।

    First published: