‘দেশ আগে, দল পরে, ব্যক্তি শেষে’, দলের মধ্যে গণতন্ত্র নিয়ে আডবানির বিস্ফোরক ব্লগ

লোকসভা ভোটের মুখে অবশেষে নীরবতা ভেঙে নিজের ব্লগেই মনের কথা উজাড় করে দিয়েছেন আডবানি

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 04, 2019 08:36 PM IST
‘দেশ আগে, দল পরে, ব্যক্তি শেষে’, দলের মধ্যে গণতন্ত্র নিয়ে আডবানির বিস্ফোরক ব্লগ
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 04, 2019 08:36 PM IST

#নয়াদিল্লি: অবশেষে মুখ খুললেন প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবানি ৷ লোকসভা ভোটের মুখে ৫০৯ শব্দের এক বিস্ফোরক ব্লগে নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহের দলের উদ্দেশ্যেই দিলেন বিশেষ বার্তা, ‘দেশ আগে, দল পরে, ব্যক্তি শেষে’ ৷ একসময়ের দাপুটে প্রবীণ নেতাকে প্রার্থী পদের তালিকা থেকে ব্রাত্য রেখেছে দল ৷ ৯১ বছর বয়সী এই লৌহপুরুষ বিজেপির প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর থেকেই ছিলেন নীরব ৷ পাওয়া যায়নি কোনও প্রতিক্রিয়া ৷

বেজে গিয়েছে লোকসভা ভোটের দামামা ৷ প্রতিদিনই রাজনৈতিক ময়দানে চড়ছে উত্তেজনার পারদ ৷ লোকসভা ভোটের মুখে অবশেষে নীরবতা ভেঙে নিজের ব্লগেই মনের কথা উজাড় করে দিয়েছেন আডবানি ৷ তিনি লিখেছেন,

‘রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে কখনও শত্রু ভাবেনি বিজেপি ৷ দলের জন্মলগ্ন থেকে এমন মনোভাব ছিল না ৷ এটাই খুব গুরুত্বপূর্ণ সময় যখন বিজেপির পিছনে ফিরে দেখা উচিত ৷ তারপর নিজের অন্দরে উঁকি দিয়ে আগামীর দিকে এগিয়ে যাওয়া উচিত ৷’

আডবানীর দীর্ঘদিনের নির্বাচনী কেন্দ্র গান্ধিনগর থেকে ২০১৯ নির্বাচনে লড়ছেন বর্তমান বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ ৷ প্রার্থী পদ না পাওয়ার যন্ত্রণার থেকেও ব্লগের প্রতি ছত্রে ফুটে উঠেছে দলের বর্তমান সদস্যদের প্রতি অভিমান ৷ দলের ভিতরের গণতন্ত্র নিয়ে হতাশা ৷

বতর্মানে গেরুয়া শিবিরের জাতীয়তাবাদী আদর্শ নিয়ে প্রশ্ন তুলে আডবানি লিখেছেন,

Loading...

‘রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে শত্রু ভাবেনি বিজেপি ৷ দলের জন্মলগ্ন থেকে এমন মনোভাব ছিল না ৷ বিজেপির জাতীয়তাবোধ পরমতসহিষ্ণু ৷ বিরোধী কথা বললেই কেউ দেশবিরোধী নয় ৷’

বিজেপির পরিবর্তনে ব্যথিত আডবানি ৷ তুলনা টেনেছেন তাঁর সময়ে দলের নীতি ও আদর্শের সঙ্গে বর্তমানে মোদি শাহের বিজেপির ৷ নিজের ব্লগে তিনি লিখেছেন,

‘ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক চিন্তার স্বাধীনতা ছিল ৷ গণতন্ত্র শক্তিশালী করতে সকলে এগিয়ে আসুন ৷ তবে সবাই আরও চিন্তা করুন ৷’

ভোটের আগে বিজেপির একসময়ের পোস্টার নেতার এমন বিস্ফোরক উক্তিতে চরম অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির ৷

First published: 07:28:45 PM Apr 04, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर