মহিলাদের পিঠের উপর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন পুরোহিত, মা হতে এমনই কুসংস্কার চলে এই রাজ্যে, দেখুন ভিডিও!

মহিলাদের পিঠের উপর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন পুরোহিত, মা হতে এমনই কুসংস্কার চলে এই রাজ্যে, দেখুন ভিডিও!

মাধাই মেলাতে অঙ্গারমতী ঠাকরুনকে পুজো দিতে প্রতি বছরই ভক্ত সমাগম হয়। হাজার হাজার মানুষ আসেন পুজো দিতে। সেখানেই এই প্রথা মানা হয়।

মাধাই মেলাতে অঙ্গারমতী ঠাকরুনকে পুজো দিতে প্রতি বছরই ভক্ত সমাগম হয়। হাজার হাজার মানুষ আসেন পুজো দিতে। সেখানেই এই প্রথা মানা হয়।

  • Share this:

#রায়পুর: রাস্তার মাঝে উপুর হয়ে শুয়ে রয়েছেন অসংখ্য মহিলা। তাঁদের পিঠের উপর দিয়ে মন্ত্রোচ্চারণ করতে করতে হেঁটে যাচ্ছেন কয়েকজন পুরোহিত। হাতে কয়েকটি পতাকা। এমনই এক দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়েছে নেটদুনিয়ায়। জানা গিয়েছে, এই ঘটনাটি ছত্তিসগড়ের ধামতারি জেলার। বিয়ের পর মা হওয়ার জন্য এ ভাবেই মহিলারা পুরোহিতের তথা ভগবানের আশীর্বাদ নেন।

ছত্তিসগড়ের ধামতারি জেলায় দীপাবলীর পর প্রথম শুক্রবার মাধাই মেলা আয়োজিত হয়। নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, এই মাধাই মেলাতে অঙ্গারমতী ঠাকরুনকে পুজো দিতে প্রতি বছরই ভক্ত সমাগম হয়। হাজার হাজার মানুষ আসেন পুজো দিতে। সেখানেই এই প্রথা মানা হয়। প্রায় ৫০০ বছর ধরে এই প্রথা প্রচলিত আছে বলে জানাচ্ছেন সেখানকার বাসিন্দারা। এ বছরও এর অন্যথা হয়নি। ভিডিওয় দেখা গিয়েছে, ২০০ জন মহিলা উপুর হয়ে শুয়ে রয়েছেন রাস্তায়। আর তাঁদের উপর দিয়ে তিনজন পুরোহিত হেঁটে যাচ্ছেন। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই রীতিমতো শোরগোল পড়েছে। এমন কুসংস্কার নিয়ে একাধিক প্রশ্ন তুলেছেন সকলে।

https://twitter.com/Anyone017/status/1330472063492997121?s=20

বিয়ের পর মা হতে সমস্যা হওয়া কোনও নতুন বিষয় নয়। একাধিক চিকিৎসা পদ্ধতি রয়েছে এই সমস্যা দূর করার জন্য। কিন্তু এই ধামতারি জেলার একাংশ মনে করেন যে, এই প্রথাতেই মিলবে ফল। অর্থাৎ এই উৎসবের দিন নারীদের পিঠের উপর দিয়ে পুরোহিতরা হেঁটে গেলে তাঁদের সন্তান হতে আর কোনও সমস্যা হবে না।

এই প্রথা নিয়ে অনেকে অনেক রকম প্রশ্ন তুললেও এই জেলার অনেকেই এই কুসংস্কারে বিশ্বাস করেন। তাঁদের মত- তাঁরা এই প্রথা মেনে সুফলও পেয়েছেন। অনেক মহিলাই পুরোহিতের এই আশীর্বাদের পর সন্তানসম্ভবা হয়েছেন।

মাধাই মেলার এমন ভিডিও ভাইরাল হতেই এ বিষয়ে প্রশাসনিক তৎপরতা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে থাকে। যদিও এ বিষয়টি একেবারেই সমর্থন করেন না বলে জানিয়েছেন ছত্তিসগড় স্টেট কমিশনের চেয়ারপার্সন কিরণময়ী নায়ক। তাঁর মতে, এই ভাবে পিঠের উপর দিয়ে এত জন হেঁটে গেলে মহিলাদের কোমরে বা পিঠে চোট লাগতে পারে। তিনি আশ্বাস দিয়েছেন, এই ধরনের কুসংস্কার থেকে বিরত রাখতে তিনি ওই গ্রামে যাবেন এবং মহিলাদের সঙ্গে কথা বলবেন।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

লেটেস্ট খবর