Home /News /national /
‘নর্দমা পরিষ্কার করতে সাংসদ হইনি’ ফের সাধ্বী প্রজ্ঞার মন্তব্যে বিতর্ক

‘নর্দমা পরিষ্কার করতে সাংসদ হইনি’ ফের সাধ্বী প্রজ্ঞার মন্তব্যে বিতর্ক

  • Share this:

    #ভোপাল: ফের বিতর্কিত মন্তব্য সাধ্বী প্রজ্ঞার। মধ্যপ্রদেশের সিহোরে দলীয় কর্মীদের বৈঠকে তিনি বলেন, শৌচালয় পরিষ্কার করা তাঁর কাজ নয়। এখানেই বিরোধীদের প্রশ্ন, তাহলে কি প্রধানমন্ত্রীর স্বচ্ছ ভারত অভিযানকেই চ্যালেঞ্জ করছেন ভোপালের বিজেপি সাংসদ?

    বিজেপি সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা বলেন,‘নর্দমা পরিষ্কার করার জন্য মানুষ আমাকে নির্বাচিত করেননি। শৌচালয় পরিষ্কার করতেও ক্ষমতায় আসিনি। মানুষ যে কাজের জন্য ভোট দিয়েছেন, সততার সঙ্গে সেটাই করব। আগেও বলেছি, আবারও তাই বলব।’

    এর আগেও একাধিকবার তাঁর মন্তব্যে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। ফের বিতর্কিত মন্তব্য করে বিজেপির অস্বস্তি বাড়ালেন ভোপালের বিজেপি সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা। রবিবার মধ্যপ্রদেশের সিহোরে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক ছিল সাধ্বীর। এলাকার পরিচ্ছন্নতার প্রসঙ্গ উঠতেই সাধ্বী প্রজ্ঞা বলেন, শৌচালয় পরিষ্কার করা তাঁর কাজ নয়। সাধ্বীর এই মন্তব্যের পরেই প্রশ্ন উঠেছে, তাহলে কি প্রধানমন্ত্রীর স্বচ্ছ ভারত অভিযানকেই চ্যালেঞ্জ করছেন তিনি? লোকসভা ভোটের আগে থেকেই প্রধানমন্ত্রীর মুখে বারবার শোনা গিয়েছে স্বচ্ছ ভারত অভিযানের কথা। ভোটের প্রচারেও স্বচ্ছ ভারত বা শৌচালয় তৈরির ঢালাও খতিয়ান দিয়েছে বিজেপি। এমনকী, প্রধানমন্ত্রীকেও ঝাড়ু হাতে স্বচ্ছ ভারত অভিযানে অংশ নিতে দেখা গিয়েছে। সম্প্রতি সংসদ চত্বরে সাফাই অভিযানে নেমেছিলেন হেমা মালিনী, অনুরাগ ঠাকুর-সহ বিজেপির একাধিক সাংসদ। সেখানে সাফাই নিয়েই কী করে দায় ঝাড়তে পারেন এক বিজেপি সাংসদ? অবশ্য, এই প্রথম বিতকির্ত মন্তব্য নয়। মালেগাঁও বিস্ফোরণকাণ্ডে অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা এর আগে,

    - লোকসভা ভোটের মুখে গান্ধির হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমী বলেছিলেন - সাধ্বী দাবি করেছিলেন, তাঁর অভিশাপে মারা গিয়েছিলেন মুম্বই সন্ত্রাসদমন শাখার প্রধান হেমন্ত করকরে

    সাধ্বীর মন্তব্যের পর তাঁকে জরুরি তলব করে ভর্ৎসনা করেন বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা-সহ কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তবে ভোপালের বিজেপি সাংসদের পাশে দাঁড়িয়েছেন দিলীপ ঘোষ।

    সাধ্বী নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমী বলার পর প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ক্ষমা করতে পারবেন না। তবে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। দিগ্বিজয় সিংকে হারিয়ে ভোপালের সাংসদ হয়েছেন সাধ্বী। এবার ফের বিতর্কিত মন্তব্য। বিরোধীদের প্রশ্ন, তাহলে কি বারবার এধরনের মন্তব্য করেও ছাড় পেয়ে যাবেন ভোপালের বিজেপি সাংসদ। দল কী কোনও ব্যবস্থাই নেবে না?

    First published:

    Tags: BJP, BJP MP, Pragya Thakur, Sadvi Pragya Thakur

    পরবর্তী খবর