হিন্দু বিধবারা সম্পত্তি দিতে পারেন বাপের বাড়ির আত্মীয়কেও, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

হিন্দু বিধবারা সম্পত্তি দিতে পারেন বাপের বাড়ির আত্মীয়কেও, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, বাপের বাড়ির সদস্যরাও সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হতে পারেন । পরিূবার শব্দটিকে এখানে বৃহত্তর অর্থে বিচার করা হয়েছে ।

শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, বাপের বাড়ির সদস্যরাও সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হতে পারেন । পরিূবার শব্দটিকে এখানে বৃহত্তর অর্থে বিচার করা হয়েছে ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বাপের বাড়ির আত্মীয়ও উত্তরাধিকারী, স্বামীহারা হিন্দু বিধবা চাইলে তাঁদেরও নিজের সম্পত্তির ভাগ দিতে পাবেন, এমনটাই জানাল দেশের শীর্ষ আদালত ।

    গুরগাঁওয়ের এক হিন্দু বিধবার দায়ের করা একটি মামলায় এই রায় জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট । শের সিং মারা গিয়েছিলেন ১৯৫৩ সালে । ওই জম্পতি ছিলেন নিঃসন্তান । ১৯৫৬ সালে হিন্দু উত্তরাধিকার আইন অনুযায়ী স্বামী সম্পত্তির অর্ধেকের অধিকারী হয়েছিলেন স্ত্রী জগনো । কোনও সন্তান না থাকায় নিজের ভাইপোদের সেই সম্পত্তি পারিবারিক সমঝোতার মাধ্যমে দান করেছিলেন ওই হিন্দু বিধবা । কিন্তু জগনোর স্বামীর ভাইয়ের উত্তরাধিকারীরা এর চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা দায়ের করেন । সেই মামলাতেই সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি অশোক ভূষণ ও বিচারপতি আর সুভাষ রেড্ডির বেঞ্চ জানিয়েছে, হিন্দু উত্তরাধিকার আইনের ১৫(১)(ডি) ধারা অনুযায়ী, বাপের বাড়ির সদস্যরাও সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হতে পারেন । পরিূবার শব্দটিকে এখানে বৃহত্তর অর্থে বিচার করা হয়েছে ।

    এই মামলার প্রতিটি ক্ষেত্রে বিচার্য বিষয় ছিল পারিবারিক সমঝোতার বিষয়টি । আবেদনকারীদের আইনজীবী জানিয়েছিলেন, যাঁরা সম্পত্তির উত্তরাধিকার পেয়েছেন, তাঁরা নেহাতই তাঁদের পরিবারের কাছে আগুন্তুক । কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, এ ক্ষেত্রে উত্তরাধিকারীদের আগুন্তুক হিসাবে গণ্য করা যাবে । পরিবার বলতে কী বোঝায় তা এ ক্ষেত্রে গুরুত্ব দিয়ে বিচার করা হয়েছে ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    লেটেস্ট খবর