corona virus btn
corona virus btn
Loading

ইফতারের আগে খেয়ে নেওয়ায় বৃদ্ধকে বেধড়ক মারল পাকিস্তানি পুলিশ

ইফতারের আগে খেয়ে নেওয়ায় বৃদ্ধকে বেধড়ক মারল পাকিস্তানি পুলিশ

ভীষণ খিদে পেয়েছিল ৷ তাই আগুপিছু কিছু না ভেবে ঘরের দাওয়ায় বসে ভাত খাচ্ছিলেন বৃদ্ধ গোকাল দাস ৷

  • Share this:

#ইসলামাবাদ: ভীষণ খিদে পেয়েছিল ৷ তাই আগুপিছু কিছু না ভেবে ঘরের দাওয়ায় বসে ভাত খাচ্ছিলেন বৃদ্ধ গোকাল দাস ৷ কিন্তু বুঝতে পারেননি ‘অসময়ে’ খাওয়ার ‘অপরাধে’ শাস্তি পেতে হবে তাঁকে ৷ ইফতার শুরুর ৪০ মিনিট আগে প্রকাশ্যে খাওয়ার অপরাধে পাকিস্তানি কনস্টেবলের হাতে বেধড়ক মার জোটে বৃদ্ধের কপালে ৷

এখন চলছে রমজান মাস ৷ ইফতারের আগে যে কিছু খাওয়া যায় না, সেটা জানতেন না হিন্দু ধর্মাবলম্বী গোকাল দাস ৷ এই অজ্ঞানতা সহ্য করতে পারেনি পাকিস্তানি পুলিশ কর্মী আলি হাসান ৷ বৃদ্ধকে সবক শেখাতে চেয়ে তাঁর উপর নির্মম অত্যাচার করেন ওই পুলিশ কনস্টেবল ৷

ঘটনাটি ঘটেছে সিন্ধু প্রদেশের ঘোটকি জেলায় ৷ বৃদ্ধের নাতি বিনোদ কুমার ওই পুলিশ কর্মীর নামে থানায় এফআইআর দায়ের করেন ৷ একইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় রক্তাক্ত গোকুল দাসের ছবি ৷ এরপরই মিডিয়ার প্রবল সমালোচনার চাপে পড়ে অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারকে গ্রেফতার করতে বাধ্য হয় পাক পুলিশ ৷ একই সঙ্গে স্থানীয় ইন্সপেক্টর জেনারেল বৃদ্ধের উপর সুবিচারের আশ্বাস দিয়েছেন ৷

রমজান মাসে রোজা রাখেন মুসলিম ধর্মাবলম্বীরা ৷ সূর্যাস্তের পর ইফতারের মাধ্যমে রোজা খোলেন তাঁরা ৷ সূর্যাস্তের আগে কোনও রকম খাদ্য গ্রহণ তাঁদের মতে পাপ ৷ জিয়া উল হকের আমল থেকে পাকিস্তানে বহাল হয়েছে এথিরাম এ রামাদান নামে এক কালা কানুন।

ওই আইন অনুয়ায়ী রমজানের সময় পাঁচজনের সামনে খাওয়াদাওয়া করা অপরাধ, তা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি যদি হিন্দু ধর্মের নাও হন, তাহলেও তাঁকে এই নিয়ম মানতে হবে ৷ কিন্ত এই নিয়মটাই ভেঙে ফেলেছিলেন পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের ঘোটকি জেলার বাসিন্দা গোকাল দাস।

এই সময়ে সাধারণত মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে প্রকাশ্যে কেউ কিছু খান না। তাই বলে হিন্দুরাও খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে রাখেন তা নয়। সবই চলে পর্দা টাঙ্গিয়ে, অন্দরে বসে।

বিভিন্ন মানবাধিকার কর্মী এবং সুধার সভা সভাপতি অমরনাথ রণধাওয়া অভিযু্ক্ত পুলিশকর্মীর কড়া শাস্তির আবেদন জানিয়েছেন ৷

First published: June 12, 2016, 6:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर