• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Pakistan denies permission of Airspace: কাশ্মীর-শারজা উড়ানকে আকাশসীমা ছাড়বে না পাকিস্তান, ক্ষোভে ফুঁসছে উপত্যকা...

Pakistan denies permission of Airspace: কাশ্মীর-শারজা উড়ানকে আকাশসীমা ছাড়বে না পাকিস্তান, ক্ষোভে ফুঁসছে উপত্যকা...

কাশ্মীর থেকে আরব আমিরশাহিগামী উঢ়ানে আকাশসীমা দেবে না পাকিস্তান।

কাশ্মীর থেকে আরব আমিরশাহিগামী উঢ়ানে আকাশসীমা দেবে না পাকিস্তান।

Pakistan denies permission of Airspace: পাকিস্তানের অসৌজন্যের কারণে অনেকটা ঘুরে বিমানকে ইউএই পৌঁছতে হবে।

  • Share this:

    #শ্রীনগর: শ্রীনগর থেকে শারজাগামী উড়ানকে নিজেদের আকাশসীমা ব্যবহার করতে দিতে চায় না পাকিস্তান।  সম্প্রতি কাশ্মীরে গিয়ে এই বিমানপথ উদ্বোধন করেছিলেন অমিত শাহ। এখন পাকিস্তানের অসৌজন্যের কারণে অনেকটা ঘুরে বিমানকে ইউএই পৌঁছতে হবে। সরকারি সূত্রের খবর, বিমানটি এবার থেকে যাবে গুজরাটের উপর দিয়ে।

    সংবাদসংস্থা এএনআই-কে এক সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন, পাকিস্তান শ্রীনগর থেকে শারজা গামী প্রথম বিমানটিকে আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দিতে চাইনি। এই ঘটনা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীকে জানানো হয়েছে। বিদেশমন্ত্রক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক বিষয়টি দেখছে।

    আরও পড়ুন-স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিচ্ছে না হাসপাতাল? সঙ্গে-সঙ্গে অভিযোগ জানান! টোল ফ্রি নম্বর চালু

    গো ফার্স্ট , যে সংস্থার আগের নাম ছিলো গো এয়ার,  গত ২৩ অক্টোবর থেকে কাশ্মীর থেকে শারজা যাওয়ার বিমান চালু করে। প্রথম প্রথম বিমানটি পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহার করছিল। ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত কোনও অসুবিধে হয়নি। ৩১ অক্টোবর প্রথম বাধা আসে পাকিস্তানের তরফে। ওই দিন ঘুরপথে শারজা পৌঁছে যায় বিমানটি। গুজরাট হয়ে বিমানটি ৪০ মিনিট দেরিতে শারজা পৌঁছয়। এর কোনও ব্যাখ্যা পাকিস্তান এখনও পর্যন্ত দেয়নি। পাশাপাশি ভারতীয় বিমানকে আকাশসীমা ব্যবহার করতে দেওয়ার বিষয়টি সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে পাকিস্তান।

    উল্লেখ্য এই বিমানটি ভারত এবং আরব আমিরশাহির মধ্যে যাতায়াত শুরু করেছে ১১ বছর পর। ২০০৯ সালে শ্রীনগর থেকে দুবাই বিমান যাত্রা প্রথম চালু করে এয়ার ইন্ডিয়া। সে সময়ে চাহিদা ছিল না বলে কিছুদিন পর বিমানপথ বন্ধ হয়ে যায়।

    আরও পড়ুন-পেট্রোলে ৫ টাকা, ডিজেলে ১০ টাকা কমছে দাম! দীপাবলির আগেই বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

    পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্তে হতাশ ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ বলেন, "এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। পাকিস্তান একই কাজ করেছিল এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস এর বিমান এর ক্ষেত্রেও। আমি ভেবেছিলাম গো এয়ারের এই বিমানটি ক্ষেত্রে পাকিস্তান হয়তো সিদ্ধান্ত বদলাবে। তাতে আমাদের সম্পর্কের উন্নতি একটা সুযোগ থাকবে। দুঃখের বিষয় তা হওয়ার নয়।"

    Published by:Arka Deb
    First published: