শেষ মুহূর্তে এসে ভীষণ কাঁদল, নতুন জামাও পরতে চাইল না নির্ভার ধর্ষক বিনয়, আর...

শেষ মুহূর্তে এসে ভীষণ কাঁদল, নতুন জামাও পরতে চাইল না নির্ভার ধর্ষক বিনয়, আর...

ফাঁসির খবর ছড়িয়ে পড়তেই অনেকে মিষ্টি বিতরণও করেন৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: অবেশেষে ফাঁসি৷ ন্যায়বিচার মিলল নির্ভয়া ধর্ষণ মামলায়৷ নির্ভয়ার মা-বাবা তো বটেই, দেশের সাধারণ মানুষ যেন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন৷ সব নিয়ম মেনেই দড়িতে টান দিলেন ফাঁসুড়ে পবন জল্লাদ৷ জেলসূত্রের খবর যে শেষ সময় এসে কেঁদে ভাসান বিনয়৷ স্নানের পর নতুন কাপড়ও পরতে চায়নি সে৷

শুক্রবার ভোর থেকেই তিহার জেলের সামনে হয় ভিড়৷ সংবাদমাধ্যমের সকলে যেমন ছিলেন, তেমনই ভিড় করেছিলেন সাধারণ মানুষ৷ ফাঁসির সাক্ষী থাকতেই এই জমায়েত৷ করোনার হাজার ভয়কে সরিয়েই মানুষ চলে এসেছেন তিহার জেলের সামনে৷ অনেকে সেই মুহূর্তকে ক্যামেরাবন্দি করেও রাখেন৷ ২০ মার্চ দিনটিকে শ্রদ্ধঞ্জলির দিন বলে মন্তব্য করেন নির্ভয়ার বাবা৷ ফাঁসির খবর ছড়িয়ে পড়তেই অনেকে মিষ্টি বিতরণও করেন৷

জেল সূত্রের খবর, ফাঁসির নিয়ম মেনে ৪ ধর্ষককে প্রথমে স্নান করানো হয়৷ তার পর নতুন কাপড় পারানো হয়৷ এবং তারপর তাদের কিছু খেতে দেওয়া হয়৷ কিন্তু স্নানের পরে নতুন কাপড় পরতে চায়নি বিনয়৷ শেষ মুহূর্তে সে কাঁদতে থাকে৷ তবে এসব আর গ্রাহ্য করা হয়নি৷ ভোর সাড়ে ৫টায় ৪ দোষীর ফাঁসি হয়৷

First published: March 20, 2020, 9:07 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर