রাজ্যে স্থায়ী সরকারের আশায় বিজেপির সঙ্গে এনসিপি, বললেন অজিত, নতুন সরকারকে শুভেচ্ছা মোদির

রাজ্যে স্থায়ী সরকারের আশায় বিজেপির সঙ্গে এনসিপি, বললেন অজিত, নতুন সরকারকে শুভেচ্ছা মোদির

সপ্তাহখানেক রাষ্ট্রপতি শাসনের পর শপথ নিলেন দেবেন্দ্র ফাড়নবীশ৷ দ্বিতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন তিনি৷ এর ফলে জোড় ধাক্কা শিবসেনা শিবিরে৷

  • Share this:

#মুম্বই: মহারাষ্ট্রের নতুন মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ট্যুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উপমুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ারকেও৷ মোদি জানিয়েছেন যে এই নতুন জোট নিয়ে তিনি আশাবাদী৷ ফড়নবীশ ও অজিত পাওয়ারের নেতৃত্বে আরও উন্নতি হবে মহারাষ্ট্রে৷ সপ্তাহখানেক রাষ্ট্রপতি শাসনের পর শপথ নিলেন দেবেন্দ্র ফাড়নবীশ৷ দ্বিতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন তিনি৷ এর ফলে জোড় ধাক্কা শিবসেনা শিবিরে৷

Loading...

শুরু থেকে ৫০-৫০-এর দাবিতে নাছোড় ছিল শিবসেনা৷ ফলে দীর্ঘদিনের সঙ্গীর সঙ্গে জোটের রাস্তায় হাঁটতে পারেনি বিজেপি৷ তারপর আরব সাগরের পাড়ে গড়েছে নানা সমীকরণ৷ শেষপর্যন্ত জোট সরকার গঠনের পথে হাঁটে কংগ্রেস-এনসিপি-শিবসেনা৷ কিন্তু তাতে জল ঢেলে বিজেপির হাত ধরে এনসিপি৷ উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়ে শরদ পাওয়ারের ভাইপো অজিত পাওয়ার জানান যে জনতার কথা ভেবেই এই পথ বেছেছেন তারা৷ কোনও দল সর্বসম্মতভাবে কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছতে পারায় রাষ্ট্রপতি শাসন চলছিল মহারাষ্ট্রে৷ রাজ্যে স্থায়ীত্বের কথা মাথায় রেখেই তাদের এই পদক্ষেপ, স্পষ্ট করেছেন অজিত পাওয়ার৷

মহারাষ্ট্রের মহা নাটকীয় প্রত্যাবর্তন৷ শেষ পর্যন্ত সরকার গড়ল বিজেপি-এনসিপি জোট৷ কোনও দলই ম্যাজিক ফিগার না ছুঁতে পারায় সরকার গড়া নিয়ে নানা জল্পনা চলছিল৷ কংগ্রেস-এনসিপি-শিবসেনা জোট সরকার গড়ছে, তা একপ্রকার ঠিক হয়ে গিয়েছিল শুক্রবার৷ সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে উদ্ধব ঠাকরের নামও ঘোষণা হয়েছিল৷ কিন্তু তার পর দিন সাত সকালেই পাল্টে গেল সব সমীকরণ৷ এনসিপির হাত ধরে জোট সরকার গড়ল বিজেপি৷ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন দেবেন্দ্র ফড়নবীশ৷ উপ মুখ্যমন্ত্রী হলেন শরদ পাওয়ারের ভাইপো অজিত পাওয়ার৷

উল্লেখ্য গত বুধবার নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করেন শরদ পাওয়ার৷ তবে তাতে সরকার গঠন নিয়ে কোনও কথা হয়নি বলেই দাবি করে দুই দল৷ মোদি ও পাওয়ারের বৈঠকের পরপরই তড়িঘড়ি শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের পক্ষে মত দেন সোনিয়া গান্ধি৷ তারপরই শুরু হয় সরকার গঠনের প্রক্রিয়া৷ কিন্তু সেই সব প্রক্রিয়া ভেস্তে শেষ পর্যন্ত শেষ হাসি হাসলেন দেবেন্দ্র ফড়নবীশ৷ দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন তিনি৷

First published: 09:20:14 AM Nov 23, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर