হোম /খবর /দেশ /
লকডাউনে বিয়ে বাতিল, গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী যুবক, তৃতীয় পুত্র হারালেন বাবা

লকডাউনে বিয়ে বাতিল, সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলে আত্মঘাতী যুবক, তৃতীয় পুত্র হারালেন বাবা

Representational Image

Representational Image

ভোর ৪টেয় তাঁর বাবা রাজেন্দ্র গুপ্তা ওয়াশরুমে যাবেন বলে ওঠেন৷ তখনই দেখেন লিভিং রুমে সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলছে ছেলের দেহ৷

  • Last Updated :
  • Share this:

#জামশেদপুর: লকডাউনের জেরে বিয়ে আটকে গিয়েছিল৷ দুঃখে, অবসাদে আত্মঘাতী হলেন ৩০ বছরের এক যুবক৷ ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুরে৷ নিজের বাড়িতে সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলে আত্মহত্যা করেন তিনি৷ আত্মঘাতী যুবকের নাম সঞ্জিত গুপ্তা৷ দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সঞ্জিত শনিবার রাতের খাওয়া সেরে ঘরে চলে যান৷ তারপর আর দরজা খোলেননি৷ ভোর ৪টেয় তাঁর বাবা রাজেন্দ্র গুপ্তা ওয়াশরুমে যাবেন বলে ওঠেন৷ তখনই দেখেন লিভিং রুমে সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলছে ছেলের দেহ৷

সঞ্জিতের বাবা জানিয়েছেন, বিহারের ঔরঙ্গাবাদের একটি মেয়ের সঙ্গে সঞ্জিতের বিয়ে ঠিক হয়েছিল৷ ওঁদের ২৫ এপ্রিল বিয়ে হওয়ার কথা ছিল৷ করোনা ও তার জেরে লকডাউনে বিয়ের তারিখ বাতিল হয়ে যায়৷ তারপর থেকেই সঞ্জিত অবসাদে ভুগতে শুরু করে৷

পেশায় মুদির দোকানের মালিক সঞ্জিত পরিবার ও বন্ধুদের জানান, তাঁর প্রচণ্ড মানসিক চাপ হচ্ছে৷ সেই থেকেই ওঁর মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা তৈরি হয়৷ সঞ্জিতের বাবা এই নিয়ে তৃতীয় পুত্রকে হারালেন৷ প্রথম পুত্র ২০০০ সালে জলে ডুবে মারা যান৷ ২০১২ সাল থেকে আরেক পুত্র নিখোঁজ৷

Published by:Arindam Gupta
First published:

Tags: Lockdown 4, Suicide