corona virus btn
corona virus btn
Loading

Lockdown| লকডাউনে ৫৪ হাজার মৃত্যু এড়ানো গিয়েছে, বলছে কেন্দ্র

Lockdown| লকডাউনে ৫৪ হাজার মৃত্যু এড়ানো গিয়েছে, বলছে কেন্দ্র
ছবিটি প্রতীকী

নীতি আয়োগের ডেটা বলছে, প্রথম পর্যায় ও দ্বিতীয় পর্যায়ের লকডাউনের জেরে ১৪ থেকে ২৯ লক্ষ করোনা আক্রান্ত এড়ানো গিয়েছে৷ এছাড়া ৫৪ হাজার মৃত্যুও এড়ানো গিয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: লকডাউন ধীরে ধীরে উঠছে৷ নিয়ম শিথিল করা হচ্ছে একের পর এক সেক্টরে৷ কিন্তু প্রশ্ন হল, লকডাউনে কি আদৌ কিছু লাভ হচ্ছে? কেন্দ্রের দাবি, লকডাউনের ফলেই নাকি করোনা ভাইরাসের জেরে ৫৪ হাজার মৃত্যু আটকানো গিয়েছে ভারতে৷

নীতি আয়োগের ডেটা বলছে, প্রথম পর্যায় ও দ্বিতীয় পর্যায়ের লকডাউনের জেরে ১৪ থেকে ২৯ লক্ষ করোনা আক্রান্ত এড়ানো গিয়েছে৷ এছাড়া ৫৪ হাজার মৃত্যুও এড়ানো গিয়েছে৷ গত ২৫ মার্চ ভআরতে লকডাউন শুরু হয়৷ বর্তমানে চতুর্থ পর্যায়ের লকডাউন চলছে দেশে৷

নীতি আয়োর সদস্য বিনোদ পালের কথায়, 'লকডাউন ১ ও ২ থেকে ডেটা সংগ্রহ করেই হিসেবটি করা হয়েছে৷ পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারত ভারতে৷ আমরা যে ডেটা তৈরি করেছি, তা ৯৫ শতাংশ ঠিক বলেই আমরা নিশ্চিত৷ যার নির্যাস, দেশ সঠিক পথেই রয়েছে৷'

নীতি আয়োগ ছাড়াও আরও কয়েকটি সংস্থার ডেটায় দাবি করা হয়েছে, ৩৭ হাজার থেকে ৭৮ হাজার মৃত্যু এড়ানো গিয়েছে লকডাউনের ফলে৷ তথ্য বলছে, দেশের ৯০ শতাংশ করোনা ভাইরাস কেসই মহারাষ্ট্র, গুজরাত, তামিলনাড়ু, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, কর্নাটক ও পশ্চিমবঙ্গে৷

শহরের দিক থেকে দেখতে গেলে, ৭০ শতাংশ কেসই মুম্বই, দিল্লি, চেন্নাই, আহমেদাবাদ, থানে, পুনে, ইনদওর, কলকাতা, হায়দরাবাদ ও ঔরঙ্গাবাদের৷ বিনোদের কথায়, ডেটা বলছে, করোনা মূলত শহরাঞ্চলেই বেশি আঘাত করেছে৷ গ্রামাঞ্চলকে কাবু করতে পারেনি খুব একটা৷

ভারতে বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ১৮ হাজার ৪৪৭৷ সাড়ে ৩ হাজারের উপর মৃত্যু হয়েছে৷প্রায় ৪৯ হাজার মানুষের করোনা সেরে গিয়েছে৷

Published by: Arindam Gupta
First published: May 23, 2020, 7:50 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर