'কেরলের ইসলামকে ফলো করা যাক, মধ্যপ্রাচ্য নয়', স্কুল ক্যাম্পাসে বোরখায় নিষেধাজ্ঞা কেরলে

ছবিটি প্রতীকী ও সংগৃহীত

কেরলের মুসলিম এডুকেশনাল সোসাইটি-র আওতায় ১৫০টি স্কুল রয়েছে কেরলে৷ MES-র প্রেসিডেন্ট ফজল গফুর News18 Kerala-কে জানান, ছাত্রী ও শিক্ষিকা, সকলের জন্যই এই নির্দেশিকা৷

  • Share this:

    #তিরুঅনন্তপুরম: বোরখা, হিজাব-সহ যাবতীয় মুখ ঢাকার প্রথা নিষিদ্ধ ঘোষণা করল কেরলের মুসলিম এডুকেশনাল সোসাইটি (MES)৷ গত ১৭ এপ্রিল এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে৷ যার নির্যাস, কেরলের সব মুসলিম স্কুলের ক্যাম্পাসে ছাত্রী ও শিক্ষিকারা হিজাব বা বোরখা পরতে পারবেন না৷ ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ থেকেই এই নয়া নির্দেশিকা লাগু হয়ে যাচ্ছে৷

    কেরলের মুসলিম এডুকেশনাল সোসাইটি-র আওতায় ১৫০টি স্কুল রয়েছে কেরলে৷ MES-র প্রেসিডেন্ট ফজল গফুর News18 Kerala-কে জানান, ছাত্রী ও শিক্ষিকা, সকলের জন্যই এই নির্দেশিকা৷ তাঁর কথায়, 'এ বার কেরলের ইসলামকে ফলো করা যাক৷ মধ্য-প্রাচ্যের ইসলামকে নয়৷ গত ৫ বছর ধরে কিছু প্রাচীনপন্থী মুসলিম গোষ্ঠী কেরলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে পোশাক বিধি চাপিয়ে আসছে৷ আমরা এই ভীতি প্রদর্শনটাকেই শেষ করতে চাইছি৷ আমাদের ড্রেস কোড শালওয়ার কামিজ৷'

    তিনি আরও বলেন, ' এই নির্দেশিকা নিয়ে কোনও বিতর্কের অবকাশ নেই৷ ড্রেস কোড সব সময় ভদ্রস্থ হওয়ার যেমন উচিত, তেমনই মুখও ঢাকা রাখা উচিত নয়৷ এটা আমাদের মত এবং এটাই হওয়া উচিত৷'

    First published: