মাঝের আসন যতটা সম্ভব খালি রাখার চেষ্টা করুন, বিমান সংস্থাগুলিকে বলল DGCA

বিমানের মাঝের আসন

ডিজিসিএ-র বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'যতটা সম্ভব মাঝের আসনটি খালি রাখতে হবে বিমান সংস্থাগুলিকে৷ যাত্রীদের চাপ থাকলে পরের বিমানে ব্যবস্থা করার চেষ্টা করতে হবে৷'

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: অসামরিক বিমান পরিষেবা চালু হয়েছে গিয়েছে প্রায় সব রাজ্যেই৷ দেখা গিয়েছে, তিনটি আসনই ভর্তি করে যাত্রীদের নিয়ে উড়ছে বিমান৷ করোনা অতিমারির আবহে বিমান সংস্থাগুলির এ হেন নীতিতে সরকারের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সুপ্রিম কোর্ট৷ এ বার অসামরিক বিমান পরিবহণ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (DGCA) বিমান পরিবহণ সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দিল, বিমানের মাঝের আসনটি যতটা সম্ভব খালি রাখার চেষ্টা করুন৷

    কয়েক দিন আগেই কেন্দ্রকে একহাত নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বলে, কেন্দ্রের উচিত দেশবাসীর স্বাস্থ্যের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা৷ বিমান সংস্থাগুলির আয় নয়৷ মাঝের আসনে যাত্রী পরিবহণে সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং মানা হচ্ছে না৷ সোমবার ডিজিসিএ-র তরফে বিমান সংস্থাগুলিকে বলা হয়েছে, টিকিট বুকিংয়ের সময় যতটা সম্ভব মিডল সিট বা মাঝের আসনটি খালি রাখার চেষ্টা করতে হবে৷

    ডিজিসিএ-র বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'যতটা সম্ভব মাঝের আসনটি খালি রাখতে হবে বিমান সংস্থাগুলিকে৷ যাত্রীদের চাপ থাকলে পরের বিমানে ব্যবস্থা করার চেষ্টা করতে হবে৷'

    গত ২৫ মে থেকে ভারতে ঘরোয়া বিমান পরিষেবা শুরু হয়েছে৷ লকডাউনের জেরে দু মাস বন্ধ ছিল বিমান পরিষেবা৷ ৩ মাসের জন্য বিমানের ভাড়ায় সীমা বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্র৷ ব্যবসায়িক দিকটি দেখে, বিমানের মাঝের আসন খালি রাখার নির্দেশিকাও তুলে নেয় ডিজিসিএ৷ এখন আবার ডিজিসিএ বলছে, মাঝের আসন খালি রাখার জন্য যতটা সম্ভব চেষ্টা করতে হবে৷

    Published by:Arindam Gupta
    First published: