Home /News /national /
Karnataka: আমার সন্তানকে বাঁচাতে পারেন আপনারাই, সোশ্যাল মিডিয়ায় আকুতি মায়ের!

Karnataka: আমার সন্তানকে বাঁচাতে পারেন আপনারাই, সোশ্যাল মিডিয়ায় আকুতি মায়ের!

Karnataka 7 Month old baby suffering from rare disease: কর্ণাটকের বেঙ্গালুরুর রেখা দেবীও এক জন মা। কিন্তু তাঁর এক মাত্র সন্তান আজ বিরল রোগে আক্রান্ত। তাই নিজের সাত মাস বয়সী ছেলেকে বাঁচাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় আকুতি জানিয়েছেন রেখা দেবী।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#বেঙ্গালুরু: "আমার সন্তান যেন থাকে দুধে ভাতে...", নিজের সন্তানের জন্য এমন প্রার্থনাই করেন তাঁর গর্ভধারিণী মা। কর্ণাটকের (Karnataka) বেঙ্গালুরুর রেখা দেবীও এক জন মা। কিন্তু তাঁর এক মাত্র সন্তান আজ বিরল রোগে আক্রান্ত। তাই নিজের সাত মাস বয়সী ছেলেকে বাঁচাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় আকুতি জানিয়েছেন রেখা দেবী। তিনি বলেছেন এক মাত্র রক্তের স্টেম সেল পরিবর্তনেই বাঁচতে পারে তাঁর ছেলের জীবন। যদি কোনও স্বহৃদয় ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর পুত্রের রক্তের স্টেম সেলের নমুনা মিলে যায় তবেই ভালোভাবে বেঁচে ওঠার রাস্তা খুঁজে পাবে তাঁর সাত মাস বয়সী শিশু পুত্র। ছেলেকে বাঁচানোর জন্য মায়ের এই আকুতি ইতিমধ্যেই তোলপাড় হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Karnataka 7 Month old baby suffering from rare disease)।

আরও পড়ুন-ভারতকে এক দিনের সিরিজ ৩-০-তে হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার বললেন ‘জয় শ্রী রাম’ !

জানা গিয়েছে, বেঙ্গালুরুর এক দম্পতির সাত মাস বয়সী এক সন্তান রয়েছে। তাঁর নাম বিজয়দ্রা। বর্তমানে সে বেন্টা (BENTA) নামে এক বিরল রোগে আক্রান্ত। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ওই শিশুটি প্রাথমিক ভাবে ইমিউনোডেফিসিয়েন্সি ডিসঅর্ডার রোগে ভুগছে। এই রোগটি সারা বিশ্বে বিরল বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তাঁরা জানিয়েছেন, এই রোগে আক্রান্ত হলে রোগীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা প্রায় শূন্য হয়ে যায়। আক্রান্ত রোগীর রক্তের স্টেম সেল পরিবর্তন করলেই একমাত্র এই রোগ থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি মিলতে পারে। চিকিৎসকরা আরও জানিয়েছেন, গোটা পৃথিবীতে ১৪টি শিশু এখনও পর্যন্ত এই বিরল রোগে আক্রান্ত। বেন্টা একটি মারাত্মক ও বিরল প্রজাতির রোগ বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

(Photo- Impactguru.com) (Photo- Impactguru.com)

জানা গিয়েছে, নিজের সন্তানকে বাঁচাতে চিকিৎসকদের দরজায় দরজায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন বাবা, মা। কোথায় গেলে ছেলেকে বাঁচানোর রাস্তা পাওয়া যাবে দিনের পর দিন তাই খুঁজে চলেছেন তাঁরা। তবে চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে রেখা দেবী ইতিমধ্যেই জেনে গিয়েছেন এই বিরল বেন্টা রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়। একমাত্র রক্তের স্টেম সেল (Blood Stem Cell Transplant) পরিবর্তনই যে তাঁর ছেলেকে বাঁচাতে পারে তাও জেনে ফেলেছেন তিনি। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় রেখা দেবীর আকুতি কোনও স্বহৃদয় ব্যক্তি যেন এগিয়ে আসেন তাঁর ছেলেকে বাঁচাতে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রেখা দেবী জানিয়েছেন, "স্টেম সেল দান করতে আপনার মাত্র ৫ মিনিট সময় লাগবে। আপনি অনলাইনে লগ ইন করে সোয়াব নমুনা জমা দেওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন।" এই মারাত্মক রোগ মুক্তি দিতে সবার সাহায্যই একমাত্র পথ বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন-Viral Video: সাধের গাড়ি কিনতে গিয়ে অপমানিত হলেন কৃষক, তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া!

জানা গিয়েছে, বেঙ্গালুরুর শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ তথা প্রখ্যাত চিকিৎসক ডা. স্ট্যালিন রামপ্রকাশ জানিয়েছেন, সারা বিশ্বে এখনও পর্যন্ত ১৪ জন শিশু এই রোগে আক্রান্ত। সাত মাস বয়সী এই শিশুও এই বিরল রোগে আক্রান্ত। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, বয়স ও রোগের প্রভাব ও তীব্রতার দিক থেকে বিজয়দ্রার বিষয়টি প্রাথমিক পর্যায়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। রক্তের স্টেম সেল পরিবর্তনের মাধ্যমেই আক্রান্ত রোগীকে বাঁচানো যেতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি। বর্তমানে আক্রান্ত বিজয়দ্রার রক্তের সঙ্গে মিলে যাবে এমন ব্যক্তির রক্তের নমুনার খোঁজ চলছে বলেও জানিয়েছেন ওই চিকিৎসক।

তবে সাত মাস বয়সী ওই শিশুর রক্তের নমুনার খোঁজে বেঙ্গালুরুর DKMS-BMST ফাউন্ডেশন নামে একটি সংস্থা রক্তের স্টেম সেল দান করার জন্য একটি ভার্চুয়াল ড্রাইভ চালু করেছে ইতিমধ্যেই। ওই সংস্থার পক্ষ থেকেও সারা দেশের মানুষের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Karnataka

পরবর্তী খবর