Amit Shah: বাংলার রায় মেনে নিয়ে টুইট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর, মমতার জন্য একটি শব্দও নয়!

Amit Shah: বাংলার রায় মেনে নিয়ে টুইট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর, মমতার জন্য একটি শব্দও নয়!

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য একটি শব্দও খরচ করলেন না।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য একটি শব্দও খরচ করলেন না।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বাংলার মানুষের রায় মেনে নিয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। মেনে না নিয়ে অবশ্য উপায়ও নেই। বাংলায় ঘাঁটি গড়ার যে স্বপ্ন দেখেছিল বিজেপি, তা আপাতত মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছে বাংলার মানুষ। তবে বিজেপি বাংলায় প্রধান বিরোধী শক্তি হিসাবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছে। আপাতত এটাই তাদের স্বান্তনা পুরস্কার। এবারের বিধানসভা নির্বাচন থেকে এই পাওনা নিয়েই আগামীর স্বপ্ন সাজাতে শুরু করেছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তবে রাজনাথ সিং থেকে শুরু করে নির্মলা সীতারমন, এমনকী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও তৃণমূলের এমন বিশাল ব্যবধানে জয়ের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন জানিয়েছেন। একমাত্র ব্যতিক্রম হয়ে থাকলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য একটি শব্দও খরচ করলেন না।

    এদিন টুইটে অমিত শাহ লিখলেন, ''আমি বাংলার মানুষের রায়কে সম্মান জানাই। বিজেপির প্রতি সমর্থনের জন্য বাংলার মানুষকে ধন্যবাদ। বিজেপি শক্তিশালী বিরোধী দল রূপে বাংলার মানুষের অধিকার এবং রাজ্যের উন্নয়নের জন্য নিরন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাবে। বাংলার বিজেপি নেতৃত্বের সকল কার্যকর্তাদের পরিশ্রমের জন্য তাদের অভিনন্দন।'' এদিন কেরলের মানুষকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। লিখেছেন, ''কেরলের মানুষকে অনেক ধন্যবাদ। আপনাদের অসাদারণ সমর্থন ছিল বিজেপির প্রতি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে আমরা আপনাদের রাজ্যের উন্নতিতে চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখব না। কেরলে বিজেপির কর্মী, সমর্থকদের নিরন্তর পরিশ্রম ও প্রচেষ্টাকে সম্মান জানাই।''

    অসমে আরও একবার ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি। এদিন অসমের মানুষের উদ্দেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লিখেছেন, ''শান্তি, সুশাসন ও বিকাশের রাজনীতি ফিরিয়ে আনার জন্য অসমের মানুষকে অনেক ধন্যবাদ। নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে রাজ্যের সরকার অসমের মানুষের উন্নতি, সুরক্ষা ও সমৃদ্ধির জন্য সবরকম চেষ্টা করবে। এই জয়ের জন্য সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা, রনজিত কুমার দাস, হিমন্ত বিশ্বশর্মাকে অনেক অভিনন্দন। অসমের বিকাশে আমরা কোনও ত্রুটি রাখব না।''

    Published by:Suman Majumder
    First published: