corona virus btn
corona virus btn
Loading

হিন্দু , মুসলিম শিল্পীরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে তৈরি করলেন রাম মন্দিরের ২১০০ কেজির ঘণ্টা

হিন্দু , মুসলিম শিল্পীরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে তৈরি করলেন রাম মন্দিরের ২১০০ কেজির ঘণ্টা

দাউ দয়াল, এই কর্মকাণ্ডের কাণ্ডারি জানালেন, ‘আমাদের মুসলিম ভাইয়েরা নকশা প্রস্তুতি, পালিশের কাজে পটু।‌

  • Share this:

সর্বধর্ম সমন্বয়ের আদর্শ উদাহরণ হয়ে রইল অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের দিনটি। আরও অনেকগুলি ঘটনার মতো অযোধ্যার রামমন্দিরের জন্য তৈরি ২১০০ কেজির ঘণ্টাও বয়ে নিয়ে চলেছে সর্বধর্ম সমন্বয়ের এক আদর্শ উদাহরণ। কারণ, এই ঘণ্টা তৈরি করেছেন দাউ দয়াল নামে এক শিল্পী। আর সেই ঘণ্টাটি ডিজাইন করেছেন এক মুসলিম শিল্পী, তাঁর নাম ইকবাল মিস্ত্রি। আর সেই ঘণ্টাটিই এবার অযোধ্যার রাম মন্দিরে শোভা পাবে। অষ্টধাতুর তৈরি এই ঘণ্টা তৈরি করতে খরচ হয়েছে ২১ লক্ষ টাকা। কিন্তু তাঁরা এই ঘণ্টা তৈরির জন্য একটা টাকাও নিচ্ছেন না। মনে করছেন, এই ঘণ্টা তাঁদের কাছে ঈশ্বরের এক আশীর্বাদের মতো, যা ইতিহাস হয়ে থাকবে। তাই অষ্টধাতুর তৈরি ঘণ্টা বিনামূল্যে তাঁরা দান করবেন রাম মন্দিরে।

দাউ দয়াল, এই কর্মকাণ্ডের কাণ্ডারি জানালেন, ‘আমাদের মুসলিম ভাইয়েরা নকশা প্রস্তুতি, পালিশের কাজে পটু।‌ আর এতবড় একটি ঘণ্টা বানাতে গেলে অনেকরকম জটিলতা তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আপনাকে পদে পদে দেখতে হবে, একটি ছোট্ট ধাপেও যেন আপনার কোনও ভুল না হয়ে যায়। ভয় কাজ করছিল মনে মনে। কাজটি ভাল না হলে! গলিত ধাতবটি ঢালতে গিয়ে যদি পাঁচ সেকেন্ডেরও দেরি হয়ে যায়, তাহলে পুরো খাটনিটা জলে যাবে।‌ শুধু পিতল দিয়ে তৈরি নয় এই ঘণ্টাটি। অষ্টধাতু দিয়ে প্রস্তুত করা হয়েছে। স্বর্ণ, রৌপ্য, তামা, দস্তা, সীসা, টিন, লোহা এবং পারদ। কিন্তু অন্যদিকে আমাদের মধ্যে উত্তেজনাও কাজ করছিল। রাম মন্দিরের জন্য ঘণ্টা বানানোর অর্ডার যে!‌’‌

দয়াল গত ৩০ বছর ধরে ঘণ্টা তৈরির কাজ করে আসছেন। কিন্তু এতবড় কাজ প্রথম করছেন। চার প্রজন্মের ব্যবসায় প্রথম এত বড় দায়িত্ব তাঁকে নিতে হয়েছে। তাই আনন্দ থাকলেও ভয় ছিল প্রথম থেকে। তবে ভরসা ছিল হিন্দু, মুসলিম ভাইয়েরা একসঙ্গে কাজটা উতরে দিতে পারবেন। সেই কাজের জন্য তাঁরা সফল। মোট ২৫ জন হিন্দু মুসলিম কর্মী মিলে সময়ের মধ্যেই তৈরি করতে পেরেছেন ঘণ্টাটি।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: August 10, 2020, 1:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर