• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • দিল্লি থেকে মাত্র ২০০ কিমি দূরে ১৬ কোটি পঙ্গপাল !

দিল্লি থেকে মাত্র ২০০ কিমি দূরে ১৬ কোটি পঙ্গপাল !

Representational Image

Representational Image

করোনা এখনও বিদায় হল না। তারই মধ্যে পাকিস্তান থেকে উড়ে এসে জুড়ে বসল ঝাঁকে ঝাঁকে পঙ্গপাল।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  পাল পাল পঙ্গপাল। শস্যখেকো পঙ্গপাল দেশের কৃষকদের ঘুম উড়িয়েছে। পঞ্জাব, গুজরাত, মহারাষ্ট্র ও মধ্যপ্রদেশে ফসলী জমিতে হানা দিয়েছে পঙ্গপাল বাহিনী। পঙ্গপালের উৎপাত রাজস্থান ও হরিয়ানাতেও। করোনা থেকে রক্ষে নেই। এবার কি তাহলে না খেয়ে মরতে হবে? পঙ্গপাল তাড়াতে পদক্ষেপ করল কেন্দ্রও। জানা গিয়েছে, দিল্লি থেকে এখন মাত্র ২০০ কিমি দূরে ১৬ কোটি পঙ্গপালের ঝাঁক ৷ এত বড় পঙ্গপালের দল রাজধানীতে পৌঁছলে যে বড়সড় বিপদ ঘটবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না ৷

    করোনা এখনও বিদায় হল না। তারই মধ্যে পাকিস্তান থেকে উড়ে এসে জুড়ে বসল ঝাঁকে ঝাঁকে পঙ্গপাল। রবিশস্য তোলা হয়ে গেলেও এই পতঙ্গের হানায় খারিফ শস্যে বিপুল ক্ষতির আশঙ্কা। এখনও পর্যন্ত,রাজস্থান, পঞ্জাব, গুজরাত, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা তিনশোর বেশি এলাকার ৪৭ হাজার হেক্টর জমিতে পঙ্গপাল হানা দিয়েছে ৷

    তাহলে কি এবার না খেয়ে মরতে হবে? অবস্থা এমন যে, কোথাও ঢাক-ঢোল পিটিয়ে, থালা বাটি বাজিয়ে বা কোথাও তারস্বরে ডিজে বাজিয়ে আর কোথাও ড্রোনের সাহায্যে পঙ্গপাল বিদায়ের চেষ্টা করা হচ্ছে। পঙ্গপালের মেঘ কাটাতে কিছু পদক্ষেপ করেছে কেন্দ্রও। বিভিন্ন রাজ্যে কন্ট্রোল রুম থেকে নজরদারি চলছে।

    পঙ্গপাল তাড়াতে কীটনাশক ছড়াতে দমকলের ৮৯ ইঞ্জিন ৷ সমীক্ষা করতে ১২০ টি গাড়ি ৷ স্প্রে-সহ ৪৭ গাড়ি এবং ৮১০টি স্প্রে করার যন্ত্র দেওয়া হয়েছে ৷ প্রতিদিন দেশের নতুন নতুন এলাকায় পঙ্গপাল বাহিনী ঢুকে পড়েছে। মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে ফসলের দফারফা করে পতঙ্গের ঝাঁক দু’টি ভাগে ভাগ হয়ে ঢুকেছে মহারাষ্ট্রে। এক দল গিয়েছে নাগপুরের পারসেওনির দিকে আর এক দল গিয়েছে ভান্ডারার দিকে। উত্তর মহারাষ্ট্রে বিদর্ভ ও চার জেলায় পঙ্গপালের হামলার সতর্কবার্তা জারি হয়েছে। ওড়িশাতেও কৃষকদের সতর্ক করেছে প্রশাসন।

    জানুয়ারির মাঝামাঝি পাকিস্তান থেকে ভারতে ঢুকতে শুরু করে পঙ্গপালের ঝাঁক ৷ গত ২৭ বছরে এই বছরই সবচেয়ে বেশি পরিমাণে পঙ্গপালের হানা ৷ একটি পূর্ণাঙ্গ মরু পঙ্গপাল প্রতিদিন ২ গ্রাম খাবার খায় ৷ ১ বর্গকিলোমিটার জুড়ে ১৫ কোটি পঙ্গপালের ঝাঁক থাকতে পারে ৷ এই এক ঝাঁক পঙ্গপাল একদিনে ৩৫ হাজার মানুষের খাবার খেতে পারে ৷ পঙ্গপালের টার্গেট ফসল, মানুষকে আক্রমণ করে না ৷ তীব্র আওয়াজে পঙ্গপাল শুধু দূরে পালিয়ে যায় ৷ কীটনাশক ও রাসায়নিক দিয়ে পঙ্গপালকে বাগে আনা যেতে পারে ৷

    একেই লকডাউনের জেরে দেশের অর্থনীতিতে প্রভাব পড়েছে। তার মধ্যে ভারতের মত কৃষিপ্রধান দেশে পঙ্গপালের হানায় অর্থনীতিতে বিপর্যয়ের অশনি সংকেত দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: