corona virus btn
corona virus btn
Loading

দিল্লির ধর্মীয় জমায়েত থেকে ৬৪৭ জনের করোনা সংক্রমণ, জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক

দিল্লির ধর্মীয় জমায়েত থেকে ৬৪৭ জনের করোনা সংক্রমণ, জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক
দিল্লির জমায়েত থেকে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ৷ PHOTO- FILE

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল শুক্রবার জানিয়েছেন, গত চব্বিশ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আশঙ্কাটা ছিলই৷ দিল্লির নিজামুদ্দিনে তবলিঘি জামাতের জমায়েত থেকে সারা দেশে এখনও পর্যন্ত ৬৪৭ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক৷ দেশের মোট চোদ্দটি রাজ্যে এখনও পর্যন্ত এই আক্রান্তদের খোঁজ মিলেছে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দাবি৷ এই আক্রান্তদের প্রত্যেকের সঙ্গেই তবলিঘি জামাতের যোগ রয়েছে বলে দাবি মন্ত্রকের কর্তাদের৷

যে রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে আক্রান্তদের খোঁজ মিলেছে সেগুলি হলো আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, অসম, দিল্লি, হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা, জম্মু কাশ্মীর, ঝাড়খণ্ড, কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, তামিলনাড়ু, তেলেঙ্গানা, উত্তরাখণ্ড এবং উত্তর প্রদেশ৷

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যখন বাড়ছিল সেই সময়েই সরকারের সতর্কতা অমান্য করে মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময়ে দিল্লির নিজামুদ্দিনে তবলিঘি জামাতের একটি ধর্মীয় জমায়েত হয়৷ এমনকী, লকডাউন জারি হওয়ার পরেও নিজামুদ্দিনের একটি মসজিদের মধ্যে দেড় থেকে দু' হাজার মানুষ জমায়েত করে ছিল৷ তার মধ্যে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মতো বহু বিদেশি নাগরিক এসেছিলেন৷ তাঁদের অনেকের শরীরেই পরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে৷ বিভিন্ন রাজ্য সরকার এখন ওই জমায়েতে যোগদানকারী ব্যক্তিদের খোঁজ চলছে৷ আশঙ্কা করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তিদের মাধ্যমেই অসংখ্য মানুষের শরীরে সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে৷

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল শুক্রবার জানিয়েছেন, গত চব্বিশ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বে়ড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৬৷ তবে গত চব্বিশ ঘণ্টায় বারোটি মৃত্যুর মধ্যে কোনওটির সঙ্গে দিল্লির তবলিঘি জামাতের যোগ আছে কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রকের যুগ্মসচিব৷ বৃহস্পতি থেকে শুক্রবারের মধ্যে দেশে নতুন করে মোট ৩৩৬ জনের শরীরে নতুন করে সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে৷ শুক্রবার পর্যন্ত দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৩০১ বলে দাবি করেছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক৷ তার মধ্যে ১৫৭ জন এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: April 3, 2020, 7:09 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर