Home /News /national /
মোবাইল মেয়েদের ধর্ষণের দিকে নিয়ে যায়! উত্তরপ্রদেশ মহিলা কমিশনের বক্তব্যে ধিক্কার দেশজুড়ে!

মোবাইল মেয়েদের ধর্ষণের দিকে নিয়ে যায়! উত্তরপ্রদেশ মহিলা কমিশনের বক্তব্যে ধিক্কার দেশজুড়ে!

মোবাইল মেয়েদের ধর্ষণের দিকে নিয়ে যায়! উত্তরপ্রদেশ মহিলা কমিশনের বক্তব্যে ধিক্কার দেশ জুড়ে!

মোবাইল মেয়েদের ধর্ষণের দিকে নিয়ে যায়! উত্তরপ্রদেশ মহিলা কমিশনের বক্তব্যে ধিক্কার দেশ জুড়ে!

মীনা কুমারী বুধবার আলিগড় গিয়েছিলেন আর সেখানেই নারী ধর্ষণ নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় ওই বিতর্কিত মন্তব্য করেন।

  • Share this:

#লখনউ: উত্তরপ্রদেশের রাজ্য মহিলা কমিশনের সদস্য মীনা কুমারী (Meena Kumari) এবার মেয়েদের সম্পর্কে একটি মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন। যা নিয়ে ব্যাপকভাবে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। মীনা কুমারী এদিন বলেছেন যে, মেয়েরা ঘন্টার পর ঘন্টা মোবাইলে কথা বলে। ফলে মেয়েদের মোবাইল দেওয়া একদম উচিত নয়। তিনি আরও বলেছিলেন যে মেয়েরা যদি বিগড়ে যায় এর জন্য পুরোপুরি দায়ী তাদের মা। উল্লেখ্য যে, মীনা কুমারী বুধবার আলিগড় গিয়েছিলেন আর সেখানেই নারী ধর্ষণ নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় ওই বিতর্কিত মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন,"সমাজে মহিলাদের উপর ক্রমবর্ধমান অপরাধের ঘটনা নিয়ে সমাজকেই ভাবনাচিন্তা করতে হবে। আর এ ধরনের ঘটনার ক্ষেত্রে মোবাইল একটা সমস্যার কারণ হয়ে উঠেছে। মেয়েরা মোবাইলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে কথা বলে। ছেলেদের সঙ্গে মেলামেশা করে। তাদের মোবাইল ফোন পরীক্ষা করে দেখা হয় না। বাড়ির লোক জানতেও পারেন না, মোবাইলে কথা বলতে বলতে কোনও ছেলের সঙ্গে পালিয়েও যায় মেয়েরা।' এছাড়াও এদিন তিনি মেয়েদের মোবাইল না দেওয়ার আবেদনও করেন সকলের কাছে। আর যদিও বা মোবাইল দেওয়া হয় তবে তার উপর নজরদারি চালানোর কথাও তিনি বলেন।

মীনা কুমারী বলেছেন, এ ক্ষেত্রে মায়েদের দায়িত্ব বেশি। কোনও মেয়ে বিগড়ে গেলে এর দায় পুরোপুরি তার মায়েরই। রাজ্যে যে ভাবে দিন দিন ধর্ষণের ঘটনা বাড়ছে এই সম্পর্কে সাংবাদিকদের একটি প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে তিনি ওই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন। আর এতেই বেধে যায় চরম বিপত্তি। অন্য দিকে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে উত্তরপ্রদেশের মহিলা কমিশনের সহ সভাপতি অঞ্জু চৌধুরী (Anju Chaudhary) মীনা কুমারীর বক্তব্যকে একেবারে ভিত্তিহীন বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেছেন, মহিলাদের উপর অপরাধ কমাতে এটা কোনও সমাধানই নয়। তিনি আরও জানান, মেয়েদের মোবাইল না দেওয়ার কথা না বলে তাদের মোবাইলের ব্যবহার শেখানোর কথা বলতে পারতেন। বলতে পারতেন, অজানা কারও সঙ্গে কী ভাবে কথা বলতে হয়, বলতে পারতেন মোবাইলের সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়ার কথা।

https://twitter.com/scribe_prashant/status/1402862361124347906?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1402862361124347906%7Ctwgr%5E%7Ctwcon%5Es1_c10&ref_url=https%3A%2F%2Fwww.news18.com%2Fnews%2Findia%2Fgirls-should-not-be-given-phones-as-it-leads-to-rapes-up-women-commission-member-3831863.html

অন্য দিকে অবস্থা বুঝে নিজের মন্তব্য নিয়ে সাফাইও দেন মীনা কুমারী। তিনি জানান, প্রত্যেক দিন মেয়েদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে ছেলেদের বন্ধুত্বের কথা এবং এর পর এর পরিণতির অভিযোগ শোনেন তিনি। তিনি আরও জানান যে অনেক মেয়েকেই এভাবে প্রলোভনে ফেলে তার পর যৌন পীড়ন করা হয় বলেও তিনি অভিযোগ পান। তাই বাবা মায়ের অসতর্ক আচরণই তাদের মেয়েদের এই পরিণতির দিকে ঠেলে দেয় বলে এই মহিলা কমিশনের সদস্যার বক্তব্য। এই কারণেই আলিগড় থেকে দু'বার জেলা পঞ্চায়েতের নির্বাচিত সদস্য মীনা কুমারী অভিভাবকদের তাদের মেয়েদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন দূরে রাখার আবেদন করেন।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Meena Kumari, Rape, UP Women Commission

পরবর্তী খবর