corona virus btn
corona virus btn
Loading

কেন্দ্রে প্রথম বৈঠকের পর ক্ষুদ্র, মাঝারি ব্যবসায়ী ও কৃষকদের জন্য সুখবর! ট্যুইট করলেন নরেন্দ্র মোদি...

কেন্দ্রে প্রথম বৈঠকের পর ক্ষুদ্র, মাঝারি ব্যবসায়ী ও কৃষকদের জন্য সুখবর! ট্যুইট করলেন নরেন্দ্র মোদি...
photo source collected
  • Share this:

#নয়া দিল্লি: আরও একবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর প্রথম বৈঠকেই প্রথম বৈঠকেই কৃষকস্বার্থে নয়া পদক্ষেপ মোদি মন্ত্রিসভার ৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকেই নজরে গ্রামীণ ভারত। কৃষক ক্ষোভে প্রলেপ। ১৫ কোটি কৃষককে বছরে তিনবার অর্থ সাহায্যের সিদ্ধান্ত ৷ মোদি সরকার নতুন সিদ্ধান্তে দেশের সব ষাটোর্ধ্ব কৃষকই এখন পেনশন প্রকল্পের আওতায় ৷ পিএম কিষাণ প্রকল্পে ক্ষুদ্র ও মাঝারি কৃষকদেরও অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়া মোদি মন্ত্রিসভা।এবার বছরে তিনবার করে অর্থসাহায্য পাবেন কৃষকেরা ৷ সব মিলিয়ে বছরে মোট ৬ হাজার টাকা পেনশন পাবেন কৃষকরা ৷এতদিন ১২ কোটি কৃষক এই প্রকল্পের আওতায় ছিলেন এবার সেই সংখ্যা বেড়ে হল ১৫ কোটি ৷ এতদিন ২ হেক্টরের বেশি জমির কৃষকরাই প্রকল্পভুক্ত ছিলেন ৷ এবার ভূমিহীন কৃষকরাও প্রকল্পভুক্ত হলেন ৷ সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন পঞ্জাব, হরিয়ানা ও রাজস্থানের মতো তিন রাজ্যের কৃষকরা উপকৃত হবেন ৷ তবে এখানেই থেমে থাকেননি আজ নেওয়া হয় আরও কতগুলি সিদ্ধান্ত।

ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য পেনশন চালু করা হবে। প্রকল্পের আওতায় আনা হবে ৫ কোটি ছোট ব্যবসায়ীকে। ১৮-৪০ বছর বয়সীরা প্রকল্পের আওতাভুক্ত হবে। এছাড়াও থাকছে গবাদি পশুর টিকাকরণ প্রকল্প। বিনামূল্যে গবাদি পশুর টিকাকরণ করা হবে। প্রকল্পে খরচ হবে ১৩ হাজার কোটি টাকা। পুরো খরচই বহন করবে কেন্দ্র। প্রকল্পভুক্ত ৩০ কোটি গরু, মোষ, ষাঁড়। প্রকল্পভুক্ত ২০ কোটি ছাগল, ভেড়া । প্রকল্পভুক্ত ১ কোটির বেশি শুয়োর। দুধের উ‍ৎপাদন বাড়াতেও নতুন উদ্যোগ কেন্দ্রের। গবাদি পশুর রোগ নিয়ন্ত্রণও লক্ষ্য কেন্দ্রের। আজ প্রথম বৈঠকেই এই প্রকল্পগুলো নিয়ে সিদ্ধান্ত নেন মোদি সরকার। তারপর নরেন্দ্র মোদি নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে একটি ছবি আপলোড করে তিনি লেখেন, "মানুষ প্রথম, মানুষই সব সময় থাকবেন সাবার আগে। আজকে মন্ত্রী সভায় যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তাতে আমি গর্বিত। আজকের সিদ্ধান্তের পর কৃষক ও পরিশ্রমী ব্যবসায়িরা উপকৃত হবেন। এই প্রকল্পগুলি কার্যকরী হলে ভারতের মানুষের উন্নতির পথে এগিয়ে যাবেন।" দেখে নিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ট্যুইট---

First published: May 31, 2019, 10:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर