NPR ও জনগণনার মধ্যে পার্থক্য কী ? জেনে নিন

NPR ও জনগণনার মধ্যে পার্থক্য কী ? জেনে নিন

পশ্চিমবঙ্গ এবং কেরল আগেই এনপিআর-এর কাজ স্থগিত রাখার কথা ঘোষণা করেছে। এব্যাপারে রাজ্যগুলোর সঙ্গে আলোচনার বার্তা কেন্দ্রের ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এনআরসি নিয়ে বিভ্রান্তি ও দেশজোড়া বিক্ষোভের মধ্যেই শুরু হচ্ছে ‘পপুলেশন রেজিস্টার’ তৈরির কাজ। মঙ্গলবার এনপিআর-এর অনুমোদন দিল কেন্দ্র। বায়োমেট্রিক পদ্ধতি নয়, বাড়ি বাড়ি ঘুরেই এনপিআরের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। একটি অ্যাপের মাধ্যমেও তথ্য সংগ্রহ করা হবে । এজন্য পরিচয় সংক্রান্ত কোনও নথি লাগবে না বলে ঘোষণা কেন্দ্রের।

এনআরসি নিয়ে দেশজোড়া বিক্ষোভের মধ্যেই এনপিআরের তথ্য আপডেট করার কাজ শুরু হচ্ছে। পরিস্থিতি বুঝেই এনপিআর নিয়ে সচেতনা বাড়াতে জোর দিচ্ছে কেন্দ্র।

মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন মন্ত্রিসভার দুই সদস্য প্রকাশ জাভেদকর ও পীযূষ গয়াল। বেশ কিছুক্ষণ ধরে এনপিআর নিয়ে ব্যাখ্যা দেন তাঁরা। কীভাবে এনপিআরের তথ্য আপডেট হবে? কেন্দ্রের ব্যখ্যা,

এনপিআরের ক্ষেত্রে কোনও পরিচয়পত্র বা নথি দিতে হবে না বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য নেবেন সমীক্ষকরা অ্যাপের মাধ্যমেও অংশ নেওয়া যাবে সেক্ষেত্রে বাড়িতে শুধু তথ্য যাচাই করা হবে

এনপিআর নিয়ে যাতে ভুল বার্তা না যায়, তার জন্য প্রথম থেকেই সতর্ক কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও জানিয়েছেন, এনআরসি ও এনপিআরের মধ্যে কোনও সম্পর্ক নেই।

এনপিআর নিয়ে সচেতনতা তৈরিতেও প্রচার চালাবে কেন্দ্র।

এনপিআর কী?

নাগরিকদের পরিচয় সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয় ৷ কোনও এলাকায় ৬ মাসের বেশি বা তার বেশি থাকলে বা ৬ মাস থাকার পরিকল্পনা থাকলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ওই অঞ্চলের বাসিন্দা ধরা হয় ৷ এনপিআর আপডেট হওয়ার পরই জনগণনার কাজ হবে ৷

২০১১ সালে জনগণনার আগে ২০১০ সালে ইউপিএ আমলে এনপিআর-তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। ২০১৫ সালে ফের তথ্য সংগ্রহের কাজ হয়। সেই তথ্য ডিজিটাইজেশনের কাজও সম্পূর্ণ হয়েছে বলে জানিয়েছে জনগণনা কমিশন। এবার ফের সেই কাজ শুরু হচ্ছে। তবে এবার পরিস্থিতি আলাদা। তাই বাড়তি ঝুঁকি না নিয়েই প্রথম থেকেই সাবধানে পা ফেলার বার্তা মোদি সরকারের।

First published: December 25, 2019, 8:08 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर