চাকুরিজীবীদের জন্য দুঃসংবাদ, ফের কমতে পারে ইপিএফে সুদের হার

চাকুরিজীবীদের জন্য দুঃসংবাদ, ফের কমতে পারে ইপিএফে সুদের হার

চাকুরিজীবীদের জন্য দুঃসংবাদ, ফের কমতে পারে ইপিএফে সুদের হার

  • Share this:

 #নয়াদিল্লি: চাকুরিজীবীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ৷ একই অর্থবর্ষে ফের পরিবর্তিত হতে চলেছে ইপিএফে সুদের হার ৷ স্বল্প সঞ্চয়ে, ব্যাঙ্কের সেভিংস অ্যাকাউন্টের পর এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফাণ্ডেও আবার সুদ কমাতে চলেছে কেন্দ্র ৷ সরকারি সিদ্ধান্তের এই জল্পনা মধ্যবিত্তের জন্য চিন্তা আরও বাড়াল ৷

কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রক সূত্রে খবর, বছর শেষের আগেই ফের ইপিএফে সুদের হার পরিবর্তন করা হতে পারে ৷ তবে সুদের হার কমিয়ে কত করা হবে সেই নিয়ে কোনও তথ্য মেলেনি ৷ শ্রম মন্ত্রকের আধিকারিক জানিয়েছেন, চলতি আর্থিক বছরে আয়ের হিসাব সম্পূর্ণ হলেই ইপিএফ-এ সুদের হার ধার্য করা হবে। এই নিয়ে ইপিএফ ট্রাস্টি বোর্ড বৈঠকে বসতে চলেছে ৷ ওই বৈঠকেই চুড়ান্ত সুদের হার নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ৷

সুদের হার নিয়ে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব ইতিমধ্যেই শ্রমমন্ত্রকের ‘সেন্ট্রাল বোর্ড অব ট্রাস্টি’র (সিবিটি) কাছে পৌঁছেছে ৷ ইপিএফে সুদের হার আবার কমানো হলে প্রায় সাড়ে চার কোটি গ্রাহক ক্ষতিগ্রস্থ হবেন ৷

২০১৫-১৬ অর্থবর্ষে ইপিএফও-তে সুদের হার ছিল ৮.৮ শতাংশ। ২০১৬-র ডিসেম্বরে সুদের হার কমিয়ে করা হয় ৮.৬৫ ৷ ইপিএফও অর্থাৎ এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্গানাইজেশনের পেশ করা রিপোর্ট অনুযায়ী, চলতি অর্থবর্ষে আয় হয়েছে প্রায় ৩৯,০৮৪ কোটি টাকা ৷ ৮.৮ শতাংশ সুদ দিয়ে ইপিএফও ৩৮৩ কোটি টাকার ঘাটতিতে ভুগছে ৷ সেখানে সুদ কমিয়ে ৮.৭ করা হলে সরকারের ঘরে ৬৯.৩৪ টাকা উদ্বৃত্ত থাকত ৷

বহুদিন ধরেই সুদের হার কমানোর জন্য শ্রমমন্ত্রককে চাপ দিচ্ছিল অর্থমন্ত্রক ৷ শ্রমমন্ত্রক প্রথমে অরাজি হলেও অবশেষে অর্থমন্ত্রকের চাপে ইপিএফে সুদের হার কমাতে সম্মতি দিল ৷ গত বছরই ১৯ ডিসেম্বর এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদ কমানোর ব্যাপারে আভাস দেয় অর্থমন্ত্রক ৷ ২০১৫-এর সেপ্টেম্বরেই স্বল্প সঞ্চয়ে এবং অক্টোবর-ডিসেম্বর-এ তিনমাসের সুদের হার ০.১ শতাংশ কমায় কেন্দ্র।

Loading...

বারবার ইপিএফে সুদের হার কমানোর পিছনে শ্রমমন্ত্রকের এক আধিকারিক যুক্তি দিয়েছেন, বন্ডের মতো লগ্নি থেকে আয় কমে যাওয়ার ফলে সুদের হার কমানোর কথা ভাবা হয়েছে ৷ গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি এক্সচেঞ্জ ট্রেড ফান্ডস বা ইটিএফ লগ্নি করার বিষয়টিকেও এই আয় কমে যাওয়ার জন্য দায়ী করা হয়েছে ৷

সুদের হার কমে যাওয়ায় ইপিএফও-এর হিসাব অনুযায়ী চলতি অর্থবর্ষে তাদের আয় দাঁড়াবে ৩৯ হাজার কোটি টাকা ৷ সুদের হার কমে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ শ্রমজীবি ও চাকুরিজীবীরা ৷ সম্প্রতি স্বল্প সঞ্চয়ে সুদের হার কমিয়েছে কেন্দ্র ৷ এবার অবসরকালীন সঞ্চয়েও কোপ পড়াতে চাকুরীজীবীদের মধ্যে ক্ষোভ জমা হচ্ছে ৷

First published: 11:00:39 AM Nov 27, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर