Home /News /national /
ED Raids Satyendar Jain: আপ মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের আর্থিক তছরুপের মামলায় উদ্ধার নগদ ২ কোটি, সোনার কয়েন

ED Raids Satyendar Jain: আপ মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের আর্থিক তছরুপের মামলায় উদ্ধার নগদ ২ কোটি, সোনার কয়েন

AAP Minister Satyendar Jain: দিল্লির মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন গত ১ জুন থেকে ইডির হেফাজতে রয়েছেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দিল্লির মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের সঙ্গে যুক্ত আর্থিক তছরুপের মামলায় অনুসন্ধান চালিয়ে ২ কোটি টাকারও বেশি নগদ এবং ১.৮ কেজি ওজনের সোনা বাজেয়াপ্ত করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)! সোমবার তল্লাশি চালানো হয়েছিল, তারপরই মেসার্স রাম প্রকাশ জুয়েলার্স লিমিটেডের অফিস থেকে ২.২৩ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে, জানিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা ইডি।

    ইডি জানিয়েছে, বৈভব জৈন, অঙ্কুশ জৈন, নবীন জৈন রাম প্রকাশ জুয়েলার্স লিমিটেডের পরিচালক এবং তারা “আর্থিক তছরুপে সত্যেন্দ্র জৈনকে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সহায়তা করেছিলেন।” অন্যদিকে, ইডির অনুসন্ধানের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

    আরও পড়ুন- ৩টে সিসি ক্যামেরাই অকেজো, ভবানীপুর জোড়া খুনে থ্রিডি ইমেজিং পদ্ধতিই হাতিয়ার

    “AAP-এর পেছনে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী, জাতীয় রাজধানী এবং পঞ্জাবে বিজেপি সরকারে নেই। মিথ্যা, মিথ্যা এবং আরও মিথ্যা। সমস্ত সংস্থার ক্ষমতা আপনার হাতে, কিন্তু ঈশ্বর আমাদের সঙ্গে রয়েছেন,” ট্যুইট করেন কেজরিওয়াল।

    দিল্লির মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন গত ১ জুন থেকে ইডির হেফাজতে রয়েছেন। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দিল্লিতে সত্যেন্দ্র জৈনের আবাসিক ভবনে এবং কিছু অন্যান্য স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে এই মামলার ‘ফলো আপ’ এর অংশ হিসাবেই। সত্যেন্দ্র জৈন আগামী ৯ জুন পর্যন্ত ইডির হেফাজতেই থাকবেন।

    আরও পড়ুন-আগামী ১০ বছরে ভারতকে দিশা দেখাবে উত্তরপ্রদেশ: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

    এই বছরের এপ্রিলে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট কলকাতার একটি কোম্পানির সঙ্গে সম্পর্কিত আর্থিক তছরুপের মামলায় ৪.৮১ কোটি টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পত্তিকে জোড়ার পরে সত্যেন্দ্র জৈনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সিবিআইয়ের দায়ের করা একটি এফআইআরের ভিত্তিতে আপ নেতার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা নথিভুক্ত হয়। অভিযোগ, সত্যেন্দ্র জৈন শেয়ারহোল্ডার হওয়া সত্ত্বেও চারটি কোম্পানির থেকে পাওয়া তহবিলের উত্স ব্যাখ্যা করতে পারেননি। তদন্ত সংস্থার দাবি, সত্যেন্দ্র জৈন দিল্লিতে বেশ কয়েকটি কোম্পানি তৈরি করেছেন বা কিনেছেন এবং তাদের মাধ্যমে ১৬.৩৯ কোটি কালো টাকা পাচার করেছেন।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: AAP, Enforcement Directorate

    পরবর্তী খবর