‘‌বিধবা হয়ে বাঁচতে চাই না’‌, ডিভোর্সের আবেদন করলেন নির্ভয়া ধর্ষণে সাজাপ্রাপ্তের স্ত্রী

‘‌বিধবা হয়ে বাঁচতে চাই না’‌, ডিভোর্সের আবেদন করলেন নির্ভয়া ধর্ষণে সাজাপ্রাপ্তের স্ত্রী
Women carry a floral tribute at an event to mark the anniversary of the brutal gangrape of a student on a bus in Delhi. (File Photo/Reuters)

তিনি একজনের বিধবা হয়ে বাকি জীবনটা কাটিয়ে দিতে চান না

  • Share this:

#‌নয়া দিল্লি: নির্ভয়া ধর্ষণে সাজাপ্রাপ্তদের নানারকম তালবাহানায় অনেকদিনই পিছিয়ে গিয়েছে ফাঁসি। এদিকে, সেই সাজাপ্রাপ্তদের একজনের স্ত্রী বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেছেন। কারণ, তিনি একজনের বিধবা হয়ে বাকি জীবনটা কাটিয়ে দিতে চান না।

সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে একজন অক্ষয় সিং ঠাকুর‌। তাঁর স্ত্রী পুনিতা আইনজীবী মারফত এই আবেদন করেছেন ঔরঙ্গাবাদ আদালতে। সেখানে তিনি বলেছেন, তাঁর স্বামীকে ফাঁসির সাজা দিয়েছে আদালত। তিনি মনে করেন তাঁরা স্বামী নির্দোষ। কিন্তু বাকি জীবনটা তিনি একজনের বিধবা স্ত্রী হয়ে কাটিয়ে দিতে চান না।

পুনিতের আইনজীবী এমকে সিং জানিয়েছেন, ভারতীয় হিন্দু বিবাহ আইন অনুসারে, যদি স্বামী কোনও ঘৃণ্য অপরাধের সঙ্গে যুক্ত থাকেন, তাহলে স্ত্রী বিবাহ বিচ্ছেদ চাইতেই পারেন। আর সেই ঘৃণ্য অপরাধের তালিকায় রয়েছে ধর্ষণও।

বিহারে ঔরঙ্গাবাদ জেলার লাহাং কর্ম গ্রামে বাড়ি এই অক্ষয় সিং ঠাকুরের। এই খবর আসার পর থেকে সেই গ্রামটিই উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে। কারণ, হাতে আর বেশি দিন নেই। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি নির্ভয়া কাণ্ডে সাজাপ্রাপ্তদের ভোর সাড়ে পাঁচটার সময় ফাঁসি হওয়ার কথা রয়েছে। যদি সাজার সময় পিছিয়ে দিতে চেষ্টার কোনও কসুর করেনি সাজাপ্রাপ্তরা। তবে চারজনের সকলেরই ক্ষমাভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। খারিজ করেছে সুপ্রিম কোর্টও। শেষ চেষ্টা করার জন্য আন্তর্জাতিক আদালতে আবেদন করেছে সাজাপ্রাপ্তরা। যদিও তাতে শেষ পর্যন্ত কোনও লাভ হবে বলে মনে হয় না।

First published: March 17, 2020, 8:26 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर