• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • মেরিনা বিচেই করুণা-সমাধি, হাইকোর্টের রায়ে উল্লাস সমর্থকদের

মেরিনা বিচেই করুণা-সমাধি, হাইকোর্টের রায়ে উল্লাস সমর্থকদের

করুণানিধির ছবি হাতে সমর্থকরা - ছবিটি সংগৃহীত

করুণানিধির ছবি হাতে সমর্থকরা - ছবিটি সংগৃহীত

M Karunanidhi Funeral: এমজিআর, জয়ললিতার পাশেই শায়িত থাকবেন দ্রাবিড় আন্দোলনের মুখ কলাইনর৷

  • Share this:

    #চেন্নাই: ডিএমকে সুপ্রিমোর দেহ কোথায় সমাধিস্থ হবে, তা নিয়ে শুনানি শেষ মাদ্রাজ হাইকোর্টে৷ আদালত জানিয়ে দিল, মেরিনা বিচেই সমাধিস্থ করা হবে এম করুণানিধির দেহ৷ অর্থাত্‍‌ এমজিআর, জয়ললিতার পাশেই শায়িত থাকবেন দ্রাবিড় আন্দোলনের মুখ কলাইনর৷

    মঙ্গলবার রাত দুটো পর্যন্ত শুনানি চলার পর মুলতুবি করে দেয় আদালত৷ বুধবার সকাল থেকে শুরু হয় ফের শুনানি৷

    গেট টপকে রাজাজি হলে ঢোকার চেষ্টা করছেন এক সমর্থক গেট টপকে রাজাজি হলে ঢোকার চেষ্টা করছেন এক সমর্থক

    করুণানিধির দেহ মেরিনা বিচে সমাধিস্থ করা যাবে না বলে মঙ্গলবার জানিয়ে দেয় তামিলনাড়ু সরকার৷ সেখান থেকেই যাবতীয় বিতর্কের শুরু৷ হাইকোর্টে শুনানি চলাকালীন তামিল সরকারের তরফে বলা হয়, এমজি রামচন্দ্রণের স্ত্রী জানকী যখন মারা গিয়েছিলেন, সে বার করুণানিধি ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি মেরিনা বিচে সমাধিস্থ করতে দেননি জানকীর দেহ৷ আপাতত চেন্নাইয়ের রাজাজি হলে রাখা রয়েছে কলাইনরের দেহ৷ সেখানে কয়েক হাজার সমর্থক জড়ো হয়েছেন প্রিয় নেতাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে৷ রাজাজি হলে র‍্যাফ নামানো হয়েছে৷ তিরঙ্গা অর্ধনমিত৷

    হাইকোর্টের রায় শুনেই কান্না স্তালিন, কানিমোঝি-সহ কলাইনরের পরিবার হাইকোর্টের রায় শুনেই কান্না স্তালিন, কানিমোঝি-সহ কলাইনরের পরিবার

    এসেছেন তাবড় রাজনৈতিক নেতার পাশাপাশি প্রচুর ফিল্ম তারকা৷ রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ই পালানিস্বামী, উপমুখ্যমন্ত্রী ও পন্নিরসেলভম-সহ এআইএডিমকে নেতৃত্ব৷ হাইকোর্টে শুনানিতে তামিল সরকার যে অ্যাফিডেভিট জমা দিয়েছে, তাতে যুক্তি হল, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী (এম করুণানিধি) ও বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী (জয়ললিতা)-র দেহ পাশাপাশি সমাধিস্থ করা প্রোটোকলের বিরুদ্ধে৷

    তামিল সরকার স্পষ্ট জানিয়েছিল, রাষ্ট্রীয় শোক পালন করা হবে, মেরিনা বিচে সমাধির জায়গা দেওয়া হবে না৷ তবে হাইকোর্টের নির্দেশে যাবতী বিতর্কের অবসান হল৷

    First published: