‘তিন বাচ্চার কী হবে?’ দুঃসংবাদ পাওয়ার পর থেকে বারবার জ্ঞান হারাচ্ছেন কনস্টেবলের স্ত্রী

‘তিন বাচ্চার কী হবে?’ দুঃসংবাদ পাওয়ার পর থেকে বারবার জ্ঞান হারাচ্ছেন কনস্টেবলের স্ত্রী

মৌজপুর ও ব্রহ্মপুরীতে দুই শিবিরের গোষ্ঠী সংঘর্ষে তখন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি ৷ হঠাৎই উড়ে আসে একটা বড় পাথর ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আফসোশ যাচ্ছে না প্রতিবেশীদের ৷ অন্যদিকে, রাগ আর ক্ষোভও পুঞ্জীভূত হচ্ছে ৷ এমন ভাল মানুষ, পরোপকারী, নির্বিবাদী মানুষটা শেষে এভাবে মারা গেলেন! এখনও যেন বিশ্বাসই হচ্ছে না তিনি নেই ৷ গতকাল দিল্লির মৌজপুর যখন জ্বলছে সে সময় ওই এলাকায় বিক্ষোভ থামাতে গিয়েছিলেন হেড কনস্টেবল রতন লাল। মৌজপুর ও ব্রহ্মপুরীতে দুই শিবিরের গোষ্ঠী সংঘর্ষে তখন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি ৷ হঠাৎই উড়ে আসে একটা বড় পাথর ৷ সোজা মাথায় এসে লাগে সেটি ৷ সঙ্গে সঙ্গে মাথা ফেটে গলগল করে রক্ত পড়তে শুরু করে ৷ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই মারা যান রতন লাল ৷ স্বামীর মৃত্যুর পর থেকেই বারবার জ্ঞান হারাচ্ছেন রতনের স্ত্রী পুনম ৷ ছোট ছেলে রামের বয়স ৮ বছর, দুই মেয়ে সিদ্ধি (১৩) ও কনক (১০) ৷ কারুরই মৃত্যু বোঝার বয়স হয়নি ৷ তারা এখনও অপেক্ষা করে বসে আছে বাবার ফিরে আসার ৷ বুরারির অমৃত বিহার কলোনির ছোট্ট বাড়িতে এখন ভিড় উপচে পড়ছে ৷ বুক ফাটা হাহাকার আর কান্নার মধ্যেই পুনমের একটাই প্রশ্ন এবার কী করে চলবে আমাদের?

First published: February 25, 2020, 4:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर