BIG BREAKING: কানহাইয়াকে নিয়ে বিচারপ্রক্রিয়া শুরুর অনুমতি দিল দিল্লি সরকার

BIG BREAKING: কানহাইয়াকে নিয়ে বিচারপ্রক্রিয়া শুরুর অনুমতি  দিল দিল্লি সরকার
File photo of former JNU students' union president Kanhaiya Kumar.

২০১৬ সালে জেএনইউ-এর একটি অনুষ্ঠানে দেশ বিরোধী স্লোগান তোলার অপরাধে তৎকালীন জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভাপতি কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীতার মামলা হয়েছিল আদালতে

  • Share this:

#নয়া দিল্লি: ২০১৬ দেশদ্রোহীতার মামলায় কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করার অনুমতি দিল দিল্লির কেজরিওয়াল সরকার৷ দীর্ঘদিন ধরে এই মামলার শুনানি নিয়ে নানারকম টালবাহনা চলছিল৷ নতুন করে ক্ষমতায় আসার পরেই এই মামলার শুনানির ফাইল ছেড়ে দিল দিল্লির সরকার৷ এর ফলে চার্জশিট দেওয়ার পরবর্তীতে আদালতে শুনানি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে দিল্লি পুলিশ৷

২০১৬ সালে জেএনইউ-এর একটি অনুষ্ঠানে দেশ বিরোধী স্লোগান তোলার অপরাধে তৎকালীন জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভাপতি কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীতার মামলা হয়েছিল আদালতে৷ অনেকেই অভিযোগ করে বলেছিলেন, জেএনইউয়ে পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান তোলা হয়েছিল৷

প্রশাসনিক রেকর্ড অনুসারে, গত জানুয়ারি মাসের ১৪ তারিখে চার্জশিট জমা দেওয়ার দু’ঘণ্টা আগে বিচার প্রক্রিয়া চালানোর অনুমতি চেয়ে দিল্লি সরকারের কাছে আবেদন করেছিল দিল্লি পুলিশ৷ সেই অনুমতির অভাবে চার্জশিট নিয়ে আর এগতে দিচ্ছিল না আদালত৷

মূল অভিযোগ ছিল, ২০১৬ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি জেএনইউয়ে একটি দেশ বিরোধী মিছিল আয়োজন করা হয়েছিল, যার নেতৃত্বে ছিলেন কানহাইয়া কুমার৷ সেখান থেকেই দেশ বিরোধী স্লোগান তোলা হয়েছিল৷ যদিও, ঘটনার পর পাঁচ বছর কেটে গেলেও মামলা নিয়ে বিশেষ এগতে পারেনি স্বরাষ্টমন্ত্রক৷ অভিযোগের তালিকায় নাম জড়িয়েছিল অন্য দুই ছাত্র গবেষক উমর খলিদ ও অনির্বাণ ভট্টাচার্য্যেরও৷ বলা হয়েছিল, পার্লামেন্ট হামলার সঙ্গে যুক্ত আফজল গুরুর সমর্থনে স্লোগান দেওয়া হয়েছিল জেএনইউয়ে৷ তারপর অবশ্য এই মামলায় অনেক জল গড়িয়েছে৷

First published: February 28, 2020, 8:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर