Home /News /national /
লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা! দেশে‌ মৃত বেড়ে ৫৬, আক্রান্ত ২৩০১

লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা! দেশে‌ মৃত বেড়ে ৫৬, আক্রান্ত ২৩০১

আবার অন্য সূত্রে খবর, একদিনে দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০০ জন নাগরিক

  • Share this:

    #‌নয়া দিল্লি:‌ ক্রমে আক্রান্তের সংখ্যার হার বাড়ছে। ক্রমে ভারতে আরও ভয়ঙ্কর হচ্ছে করোনা ভাইরাস। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুসারে, দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা এখনও পর্যন্ত বেড়ে হয়েছে ৫৬। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২৩০১। আবার অন্য সূত্রে খবর, একদিনে দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০০ জন নাগরিক। এক ধাক্কায় এতটা সংখ্যা বৃদ্ধি সত্যিই চিন্তায় ফেলেছে প্রশাসনকে। নতুন করে মহারাষ্ট্র, কেরল, তামিলনাড়ুতে আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে বদোদরায় একজনের মৃত্যু হয়েছে আজ। রাজস্থানে নতুন করে ১৪ জনের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে যাঁরা করোনা আক্রান্ত। আছে আশার খবরও। ভিলওয়ারায় দু’‌জন আক্রান্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। এছাড়া, আজ ক্রীড়া জগতের বিশিষ্ট মানুষদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে বসার কথা রয়েছে রাজনাথ সিং ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। তাঁরা এদিন কথা বলবেন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে তৈরি করোনা ভাইরাস বিশেষ কমিটির সঙ্গে।

    আজ সকালেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও বার্তায় জানিয়েছিলেন, ‘লকডাউনের সময় দেশের মানুষ যেমন অনুশাসনের পরিচয় দিয়েছেন, তা অভূতপূর্ব। আপনারা যেমন ভাবে ২২ মার্চ রবিরার করোনার যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন, তা উদাহরণ হয়েছে। এই সংকটের মুহূর্তে দেশের শক্তির পরিচয় দিয়েছে দেশ।

    আজ যখন দেশের কোটি কোটি মানুষ বাড়িতে আছেন, তখন কারোর মনে হতে পারে, আমি একা কী করব। এতবড় লড়াই তাঁরা একা লড়বেন কী করে?‌ কতদিন আর এভাবে থাকতে হবে? কিন্তু বিশ্বাস করুন, আমাদের মধ্যে কেউ একলা নয়। আমরা সবাই সবার সম্বল। আমাদের এখানে সাধারণ মানুষই ঈশ্বরের রূপ। আর এতবড় লড়াইয়ের সেই জনতারূপী বিরাট ঈশ্বরের দর্শন আমি রোজ পাচ্ছি। আমার পথ আরও স্পষ্ট হচ্ছে। করোনা অতিমারীর অন্ধকারের মধ্যে‌ থেকে আমাদের আলোর দিকে যেতে হবে। করোনা সংকটে যাঁরা সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত সেই গরীব মানুষকে আশার দিকে নিয়ে যেতে হবে। আর সেই জন্য এই রবিরাব, ৫ এপ্রিল, করোনার সংকটের লড়তে আমাদের শক্তির পরিচয় দিতে হবে। এই ৫ এপ্রিল আমাদের মহাশক্তির জাগরণ করতে হবে। তাই ৫ এপ্রিল রাত ৯ টায়, আপনাদের ৯ মিনিট আমি চাই। আপনারা ওইদিন রাতে ঘরের সব লাইট বন্ধ করে আপনারা বারান্দায় দাঁড়িয়ে মোমবাতি, টর্চ বা মোবাইলের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালান‌। তবে এই আয়োজনের সময় কেউ একজোট হবেন না। নিজেরা নিজেরা এটি পালন করবেন’‌।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published:

    Tags: Coronainindia, Coronavirus, COVID-19, Lockdown

    পরবর্তী খবর