দেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

জোট সিদ্ধান্ত খারিজ করল সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটি

জোট সিদ্ধান্ত খারিজ করল সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটি

বাম-কংগ্রেস জোটের সিদ্ধান্তে রীতিমতো বুলডোজার চালাল সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটি। জোটপন্থীদের আশাকে গুঁড়িয়ে দিয়েই কেন্দ্রীয় কমিটির ঘোষণা, পার্টি কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়াই পশ্চিমবঙ্গে জোট হয়েছে। অবিলম্বে এই ভুল শোধরাতে হবে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বাম-কংগ্রেস জোটের সিদ্ধান্তে রীতিমতো বুলডোজার চালাল সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটি। জোটপন্থীদের আশাকে গুঁড়িয়ে দিয়েই কেন্দ্রীয় কমিটির ঘোষণা, পার্টি কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়াই পশ্চিমবঙ্গে জোট হয়েছে। অবিলম্বে এই ভুল শোধরাতে হবে। সেই ভার এবার পড়ল পলিটব্যুরোর কাঁধে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অভিমত, কৌশলে কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের সব পথ বন্ধ করতেই এই কৌশলী রাস্তা নিল  সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটি।

শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আশায় বুক বেঁধেছিলো বঙ্গ ব্রিগেড। বৈঠক শেষ হতেই সেই আশা ধূলিসাৎ। কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের জন্য নজিরবিহীন তোপের মুখে পড়ল পশ্চিমবঙ্গ নেতৃত্ব। বঙ্গ ব্রিগেডের যাবতীয় তত্ত্ব উড়িয়ে দলের রায়, কংগ্রেস নয়, পার্টি কংগ্রেসই একমাত্র সত্য।

এদিন কেন্দ্রীয় কমিটির তোপ, পশ্চিমবঙ্গে ভোটের কৌশল কেন্দ্রীয় কমিটির নীতি মেনে নেওয়া হয়নি। সেখানে কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের বিরুদ্ধেই রায় দেওয়া হয়েছিল। এই অবস্থান মেনে চলতে হবে। পলিটব্যুরো রাজ্যে নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নিশ্চিত করুক।

কমিটির তোপের পাল্টা উত্তরে, কী পরিস্থিতিতে জোট করতে হয়েছে, তার ব্যাখ্যায় ১২ পাতার নোট জমা দিয়েছেন সূর্যকান্তরা। সময়ে সময়ে সুরও চড়িয়েছেন তাঁরা। তারপরেও  জোট সম্ভাবনায় দাঁড়ি টেনে দিল কেন্দ্রীয় কমিটি। কৌশলগত কারণেই ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে জনগণের জোটের তত্ত্ব।

জোট সিদ্ধান্তের প্রায়শ্চিত্তের ভার এখন পলিটব্যুরোর হাতে। রাজ্য নেতৃত্বকে পথে রাখতেই যে এই সিদ্ধান্ত তা সিপিএমের অবস্থানেই স্পষ্ট।

মতাদর্শগত বিরোধে বামদলে ভাঙনের ঘটনা নতুন নয়। জোটের প্রশ্নে কী আরও একবার এমনটা ঘটতে পারে? নাকি বাধ্য ছেলের মতোই হাত ছেড়ে আলিমুদ্দিনে ফিরবেন জোটপন্থীরা? আর ইতিহাস হয়ে যাবে হাত ধরাধরি করে ভোটের প্রচারে যাওয়া সূর্যকান্ত মিশ্র ও মানস ভুঁইয়ার ছবি ৷

First published: June 20, 2016, 9:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर