Home /News /national /
Covid Third Wave: ভারতে শিখরে পৌঁছেছে কোভিড সংক্রমণ? এখনও নয়, সামনে আরও খারাপ দিন, দাবি বিশেষজ্ঞদের

Covid Third Wave: ভারতে শিখরে পৌঁছেছে কোভিড সংক্রমণ? এখনও নয়, সামনে আরও খারাপ দিন, দাবি বিশেষজ্ঞদের

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এটা তো কিছুই নয়, ভাইরাস সংক্রমণ এখনও শিখরে পৌঁছয়নি, অর্থাৎ আগামী দিনে আরও খারাপ সময় হয়তো বা অপেক্ষা করছে, আক্রান্তের সংখ্যা আরও বেশি বাড়তে পারে।

  • Share this:

    #নয়া দিল্লি: নতুন বছরের শুরুতেই দাঁত-নখ বের করে ঝাঁপিয়ে পড়েছে মারণ ভাইরাস কোভিড! তৃতীয় তরঙ্গে ফের একবার দিশেহারা মানবজাতি! করোনার ডেল্টা, ডেল্টা প্লাস প্রজাতির সঙ্গে যোগ হয়েছে নয়া ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন! মারাত্মক সংক্রামক এই ভাইরাস দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ছে! লাগাতার একটা লম্বা সময় আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপক হারে বাড়ার পর, বিগত কিছুদিন ধরে আশার আলো দেখছিল ভারত, দৈনিক সংক্রমণের হার প্রতিদিনই কিছুটা হলেও কমছিল। কাজেই ধরে নেওয়া যাচ্ছিল, এই তরঙ্গে হয়তো বা ভাইরাস সংক্রমণের সর্বোচ্চ ভয়ঙ্কর সময় অর্থাৎ শিখর পেরিয়ে আসা গিয়েছে! কিন্তু নাহ! বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এটা তো কিছুই নয়, ভাইরাস সংক্রমণ এখনও শিখরে পৌঁছয়নি, অর্থাৎ আগামী দিনে আরও খারাপ সময় হয়তো বা অপেক্ষা করছে, আক্রান্তের সংখ্যা আরও বেশি বাড়তে পারে।

    আরও পড়ুন: স্বপ্ন দেখতেন হাজার হাজারের, পেলেন ১২ কোটি! বদলে গেল জীবন, চোখ বেয়ে এল জল...

    গত বছর ডিসেম্বরের শেষ ও জানুয়ারি মাসের শুরু থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে! খুব অল্প সময়ের মধ্যে কোভিড চিত্রটা ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে! তবে, সোমবার থেকে খানিক স্বস্তি মিলেছে। মুম্বই, দিল্লি ও কলকাতায় গত সপ্তাহের তুলনায় আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কম। প্রশাসনের দেওয়া পরিসংখ্যান যদি মেনে নেওয়া হয়, তা হলে এটাই দাঁড়ায়, বিগত কিছু দিনে দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে মুম্বই, দিল্লি ও কলকাতা কোভিড সংক্রমণের শিখর পেরিয়েছে, কারণ তার পরই সংক্রমণ কমতে থাকে! কিন্তু এমনটা আদৌ মনে করছে না বিশেষজ্ঞরা! একদিকে যখন দিল্লি, মুম্বই আর কলকাতায় আক্রান্তের সংখ্যা কমছে, অন্যদিকে ভাইজাগে বাড়ছে সংক্রমণ। চেন্নাইয়ে শনিবারের তুলনায় সোমবার যেমন দৈনিক সংক্রমণ কম, অন্যদিকে এই সংখ্যাটা গত সোমবারের তুলনায় অনেকটাই বেশি। একই ছবি বেঙ্গালুরুর।

    আরও পড়ুন: বাংলার মন পেতে বাজেটে কী চাই? মেট্রো থেকে এইমস, নির্মলাকে একগুচ্ছ প্রস্তাব রাজ্য বিজেপি-র

    এপিডেমিওলজিস্ট ডঃ চন্দ্রকান্ত লাহারিয়া জানান, '' বর্তমান পরিস্থিতিতে শিখর নিয়ে ভাবনাচিন্তা করার কোনও মানে হয় না! মানুষকে প্রতি মুহূর্তে সচেতন হতে হবে! সেটাই সবথেকে আগে কাম্য। এপিডেমিওলজি আর প্ল্যানিং সংক্রান্ত বিষয়ের ক্ষেত্রে শিখর গণনা করা প্রয়োজন হয়। দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা থেকে এটা বোঝা কঠিন যে আদৌ শিখরে পৌঁছেছে কি না, কারণ টেস্ট কমলে আক্রান্তের সংখ্যা এমনিতেই কমে যাচ্ছে। ১০ জানুয়ারির পর থেকে যাঁরা উপসর্গহীন রোগী, তাঁরা আর পরীক্ষা করাচ্ছেন না, কাজেই সঠিক আক্রান্তের সংখ্যা সামনে আসছে না।'' তাঁর মতে, প্যানডেনিক কোন পথে যাচ্ছে তা বোঝার জন্য পজিটিভিটি রেট আর হাসপাতালের কত বেড ভর্তি, তা ট্র্যাক করা উচিৎ।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Covid Third Wave

    পরবর্তী খবর