Chandan Mitra: প্রয়াত বর্ষীয়ান সাংবাদিক-সাংসদ চন্দন মিত্র!

প্রয়াত চন্দন মিত্র।

Chandan Mitra: তাঁর মৃত্যু সংবাদ এদিন ট্যুইটারে প্রথম জানান তাঁর বাল্যবন্ধু স্বপন দাশগুপ্ত।

  • Share this:

    #কলকাতা: চলে গেলেন সাংবাদিক তথা প্রাক্তন সাংসদ চন্দন মিত্র (Chandan Mitra)। তাঁর মৃত্যু সংবাদ এদিন ট্যুইটারে প্রথম জানান তাঁর বাল্যবন্ধু, বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। তিনি লেখেন, "আমি আমার প্রিয়তম বন্ধু, পাওনিয়ার পত্রিকার সম্পাদক এবং প্রাক্তন সাংসদ চন্দন মিত্র-কে হারালাম।" দুবছরের বেশি সময় ধরে অসুস্থ ছিলেন তিনি। বুধবার ভোররাতে দিল্লিতে নিজের বাড়িতেই মৃত্যু হয় তাঁর।

    শোকাতুর স্বপন দাশগুপ্ত আরও লিখেছেন, "আমরা সেই লা মার্টিনিয়ারের স্কুল জীবন থেকে বন্ধু। একসঙ্গে সেন্ট স্টিফেন্স (দিল্লি) এবং অক্সফোর্ডেও গিয়েছিলাম আমরা। এমনকী আমরা সাংবাদিকতাও শুরু করি একসঙ্গে। অযোধ্যায় গেরুয়া ঝড় নিয়ে আমরা বহু অভিজ্ঞতা বিনিময় করেছিলাম।"

    চন্দন মিত্রর মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। তিনি লিখেছেন, "চন্দন মিত্র তাঁর বুদ্ধিমত্তা এবং দূরদর্শীতার জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। সাংবাদিকতা এবং রাজনীতি- দুটি জগতেই তিনি মান্য ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে আমি দুঃখিত। তাঁর পরিবারকে আন্তরিক সমবেদনা জানাই।"

    কলকাতায় স্টেটসম্যান হাউজের সাংবাদিক হিসেবে যাত্রা শুরু করেছিলেন চন্দন মিত্র। কিছুদিনের জন্য হংসরাজ কলেজে অধ্যাপনাও করেছিলেন তিনি।  টাইমস অফ ইন্ডিয়া, দ্য সানডে অবজারভারের মত সংবাদমাধ্যমে গুরুদায়িত্ব সামলেছেন তিনি।

    বিজেপির টিকিটে দু'বার সংসদ নির্বাচন হন তিনি। ২০০৩ সালের রাজ্যসভায় নির্বাচিত হন। ২০১০ সালে মধ্যপ্রদেশ থেকে সাংসদ হন তিনি। ২০১৮ সালে চন্দন মিত্র মন বদলে তৃণমূলে যোগ দেন। পায়োনিয়ার নামক বিখ্যাত সংবাদমাধ্যমে সম্পাদক দীর্ঘদিন কাজ করেছেন চন্দন মিত্র। তবে চলতি বছরের জুন মাসেই তিনি ইস্তফা দেন।

    Published by:Arka Deb
    First published: