দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রী করার পিছনে পশ্চিমবঙ্গের ভোট অঙ্ক! কী কৌশল বিজেপি-র?

নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রী করার পিছনে পশ্চিমবঙ্গের ভোট অঙ্ক! কী কৌশল বিজেপি-র?
নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রী করার পিছনে কাজ করছে অনেক অঙ্ক৷ Photo-File

যেন তেন প্রকারে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতা দখলকেই এখন পাখির চোখ করেছেন নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ, জে পি নাড্ডারা৷

  • Share this:

#পটনা: বিহারে জেডিইউ-কে অনেকটাই পিছনে ফেলে বড় শরিক হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপি৷ ১১০টি আসনে লড়ে ৭৪টি আসনে জয়ী হয়েছে তারা৷ সেখানে ১১৫ আসনে লড়ে মাত্র ৪৩টিতে জিতেছে জেডিইউ৷ তা সত্ত্বেও নীতীশ কুমারকেই মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসানো হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব৷

বিজেপি নেতারা মুখে বলছেন, নির্বাচনের আগে দেওয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেই নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রী করা হচ্ছে৷ কারণ খোদ প্রধানমন্ত্রীও ভোট প্রচারে বলেছিলেন, বিজেপি বেশি আসন পেলেও মুখ্যমন্ত্রী হবেন নীতীশই৷ কিন্তু বিজেপি শিবিরের ভিতরের খবর বলছে, নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রী করার পিছনে আসলে আরও বড় অঙ্ক কাজ করছে৷ সোজা কথায় বললে, আগামী বছর পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটের অঙ্কই নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসানোর অন্যতম কারণ৷ দেরিতে হলেও বিজেপি নেতৃত্বের মনে ২০২৪-এর নির্বাচনী অঙ্কও রয়েছে৷ ফলে শরিকের জন্য ত্যাগ স্বীকার নয়, বরং ভবিষ্যতে আরও বড় লাভের গুড় ঘরে তুলতেই অঙ্ক কষছে গেরুয়া শিবির৷

যেন তেন প্রকারে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতা দখলকেই এখন পাখির চোখ করেছেন নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ, জে পি নাড্ডারা৷ গুরুত্বপূর্ণ এই ভোটের আগে কোনওভাবেই নীতীশের থেকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ কেড়ে নিয়ে তাঁর ক্ষোভ বাড়াতে চায় না বিজেপি শিবির৷ কারণ দেশজুড়ে নিজেদর আধিপত্য বিস্তারে মরিয়া বিজেপি৷ শিবসেনা, অকালি দল এনডিএ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার পর জেডিইউ-এর মতো গুরুত্বপূর্ণ শরিককে সন্তুুষ্ট রাখার বিষয়টি ভাবতে হচ্ছে বিজেপি নেতাদের৷ তার উপর নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসিয়ে অতি পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের ভোটারদেরও মন জয় করতে চাইছে বিজেপি৷ কারণ পশ্চিমবঙ্গে এই ধরনের ভোটারের সংখ্যা নেহাত কম নয়৷ যাঁরা আদতে পশ্চিমবঙ্গের ভোটার হলেও তাঁদের শেকড় রয়েছে বিহারে৷ কলকাতা ছাড়াও বিহার লাগোয়া এ রাজ্যের জেলাগুলি বা উত্তরবঙ্গের চা বাগানগুলিতে এই ধরনের বহু শ্রমিক রয়েছেন৷ আগামী বছর বিধানসভা নির্বাচনে যাঁদের মতামত পশ্চিমঙ্গে ভোটের ফল নির্ধারণ বড় ভূমিকা নেবে৷ ফলে আপাতত বাংলায় বিধানসভা ভোট পর্যন্ত নীতীশকেই বিহারের মুখ্যমন্ত্রী রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে বিজেপি নেতৃত্ব৷

কম আসন পেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসাটা এখন নীতীশের কাছেও অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ একসময় যে নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী করায় তিনি বিজেপি-র সঙ্গ ত্যাগ করেছিলেন, তাঁর বদান্যতাতেই কার্যত এবার নির্বাচনী বৈতরনী পার হতে হয়েছে নীতীশকে৷ মুখ্যমন্ত্রীর পদ তাঁকে ছাড়লেও বিহার সরকারের লাগাম থাকবে বিজেপি-র হাতেই৷ ফলে নীতীশকে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসিয়ে পশ্চিমবঙ্গ দখলের অঙ্ক কষলে খুব একটা ক্ষতি নেই মোদি-শাহদের৷

বিহারের বিজেপি নেতাদের একাংশ এমনিতে নীতীশের উপরে খুব একটা সন্তুষ্ট নন৷ ভোটের ফল দেখেও তাঁদের স্থির বিশ্বাস, বিজেপি একা লড়লে ফল আরও ভাল হত৷ কিন্তু নীতীশের পিছনে মোদি-শাহদের সমর্থন থাকায় আপাতত তাঁকেই মেনে নিতে বাধ্য হচ্ছেন বিহারের বিজেপি নেতারা৷

Ashok Mishra

Published by: Debamoy Ghosh
First published: November 13, 2020, 10:45 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर