corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজ্যে নিহত কর্মীদের পরিবারদের নিয়ে দিল্লি গণ-শুনানি বিজেপির

রাজ্যে নিহত কর্মীদের পরিবারদের নিয়ে দিল্লি গণ-শুনানি বিজেপির
photo: BJP Martyr Convention

গণ-শুনানিতে উপস্থিত প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের কাছে ক্ষোভ উগরে দেন নিহতদের পরিবার।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: রাজ্যে রাজনৈতিক সন্ত্রাস চালাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার।  দিল্লিতে দাঁড়িয়ে এই অভিযোগে সরব হল রাজ্যে নিহত বিজেপি কর্মীদের পরিবার। নিহত কর্মীদের পরিবারদের নিয়ে গণ-শুনানির আয়োজন করেছিল বিজেপি। এখানেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র আক্রমণ করলেন সুষমা স্বরাজ। যদিও সুষমা ছাড়া আরও কোনও বিজেপি শীর্ষনেতাকে কনভেনশনে দেখা যায়নি।

টার্গেট বাংলা। টার্গেট ২০২১। নির্দেশ এসেছিল খোদ নরেন্দ্র মোদি মারফৎ। গত সপ্তাহে রাজ্যের নেতা ও সাংসদদের মোদি জানিয়েছিলেন রাজ্যে কী ঘটছে, কী ভাবে রাজনৈতিক হিংসা হচ্ছে, তা জাতীয় স্তরে তুলে ধরতে হবে রাজ্যে নিহত বিজেপি কর্মীদের পরিবারকে দিল্লি নিয়ে গণ-শুনানি করে সেই কাজ শুরু করল বিজেপি।
গণ-শুনানিতে অংশ নিতে কয়েকদিন আগেই দিল্লি নিয়ে যাওয়া হয় নিহত বিজেপি কর্মীদের পরিবারকে। প্রাক্তন বিচারপতি, লোকপাল ও বিভিন্ন গণ-সংগঠনকে হয় গণ-শুনানি। নিহত বিজেপি কর্মীদের পরিবারের অভিযোগ, রাজ্যে রাজনৈতিক সন্ত্রাসের শিকার হচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা প্রশাসন ও পুলিশ শাসকদলের হয়েই কাজ করে৷ গণ-শুনানিতে উপস্থিত প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের কাছে ক্ষোভ উগরে দেন নিহতদের পরিবার। সংসদ থেকে ঢিলছোঁড়া দুরত্বে কনভেনশন। অথচ সুষমা স্বরাজ ছাড়া আর কোনও শীর্ষনেতাকেই দেখা যায়নি। দাড়িভিটের ঘটনায় সিবিআই তদন্ত সহ একাধিক দাবি তুলেছেন নিহতদের পরিবারের সদস্যরা। তা নিয়েও কোনও আশ্বাস মেলেনি। যদিও কৌশলগতভাবেই এই গণ-শুনানিকে ব্যবহার করতে চাইছে বিজেপি। রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা জাতীয় স্তরে তুলে ধরার কৌশল। একুশের লড়াইয়ে এই কৌশলে কী অ্যাডভান্টেজ আদায় করতে পারবে গেরুয়া শিবির?
First published: July 25, 2019, 4:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर