অপরাধীকে গ্রেফতার করে 'হানিমুন ট্রিপ'-এর আজব পুরস্কার পেলেন পুলিশকর্মী

representative image

অপরাধীকে গ্রেফতার করে 'হানিমুন ট্রিপ'-এর আজব পুরস্কার পেলেন পুলিশকর্মী

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: অপরাধীকে গ্রেফতার করে প্রোমোশন, মেডেল তো অনেক পুলিশকর্মীই পেয়েছেন। সে আর নতুন কী! নতুন ঘটনাটা তবে শুনুনু! চমকে যাবেন! অপরাধীকে গ্রেফতার করার পুরস্কার-- হানিমুন ট্রিপ-এর খরচা! এহেন অভিনব ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকে।

    এ'বছর নভেম্বরে বিয়ে করতে চলেছেন পুলিশকর্মী কে ই ভেঙ্কটেশ। দোর্দণ্ডপ্রতাপ, মারকাটারি পুলিশ কনস্টেবল একা হাতেই লড়েছেন ৩ ডাকাতের সঙ্গে। আর এই সাহসিকতাকে স্বীকৃতি জানাতে পদোন্নতি বা টাকার অঙ্কের পুরস্কার নয়, ভেঙ্কটেশকে পুরস্কৃত করা হয়েছে মধুচন্দ্রিমার সম্পূর্ণ  প্যাকেজ দিয়ে! তিনি হানিমুনে যাচ্ছেন কেরালা। সেখানে হাউজবোটে রোম্যান্টিক নিশিযাপনের অফারও রয়েছে এই প্যাকেজে! এমন পুরস্কারে খুশিতে ডগমগ বেল্লান্দুর থানার কনস্টেবল ভেঙ্কটেশ।

    জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে সারজাপুর মেন রোডে পাহারার দায়িত্বে ছিলেন ভেঙ্কটেশ। রাত প্রায় পৌনে তিনটে নাগাদ আন্দাজ ২০০ মিটার দূরে  তিনি একজনের কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। ঘটনাস্থলে পৌঁছে ভেঙ্কটেশ দেখেন দু’টি মোটরবাইকে চেপে তিনজন  দ্রুত গতিতে বেরিয়ে যাচ্ছে আর রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে  ‘চোর চোর’ বলে চিৎকার করছেন  এক ব্যক্তি।  আর বিন্দুমাত্র দেরি না করে ওই দু’টি বাইকের পিছনে ধাওয়া করেন ভেঙ্কটেশ। প্রায় ৪ কিলোমিটার তাদের পিছু নিয়ে শেষ পর্যন্ত নাগালে আসে ৩ দুষ্কৃতী। তাদের সামনে গিয়ে নিজের বাইকটি তাদের দিকে মাটিতে ছুঁড়ে দেন। অন্য মোটরবাইকে সওয়ার বাকি দু’জন পালিয়ে যায়। কিন্তু একজনকে তিনি ধরে ফেলেন। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই দুষ্কৃতীর নাম অরুণ দয়াল। বয়স ২০ বছর। তার মোবাইলের সূত্র ধরেই বাকি ২জনের খোঁজ চলছে।

    First published: