• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • APPEAL TO PM MODI 7 YEAR OLD GIRL URGES FOR TREATMENT OF RARE GENETIC DISORDER THAT COSTS CRORES SANJ

Appeal to PM Modi : চাই কোটি টাকার ওষুধ! ‘আমাকে সাহায্য করবেন?’ প্রধানমন্ত্রীর কাছে কাতর আবেদন একরত্তির...

প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন

Appeal to PM Modi : অসুখ এমন বিরল (Rare genetic disorder), যার চিকিৎসা প্রবল ব্যয়সাধ্য। এবার তাই দিল্লির ছোট্ট মেয়ে মাহি কাতর আর্জি জানাল খোদ প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি : বড় হয়ে ডাক্তার হতে চায় ছোট্ট মেয়েটি। কিন্তু ৭ বছরের এই একরত্তির শরীরে বাসা বেঁধেছে বিরল অসুখ। থমকে গিয়েছে সব স্বপ্ন। কচি প্রাণে এখন কেবলই সেরে ওঠার আকাঙ্ক্ষা। কিন্তু তার অসুখ এমন বিরল (Rare genetic disorder), যার চিকিৎসা প্রবল ব্যয়সাধ্য। এবার তাই দিল্লির ছোট্ট মেয়ে মাহি কাতর আর্জি জানাল খোদ প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

    একটি ভিডিও বার্তায় দিল্লির (Delhi) পুলিশকর্মীর কন্যা মাহি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) কাছে আবেদন জানিয়ে বলে, ”নমস্কার মোদিজি। আমার নাম মাহি। আমার বয়স ৭ বছর। আমার উচ্চতা বাড়ছে না। আপনি আমাকে সাহায্য করবেন। বড় হয়ে ডাক্তার হতে চাই। আপনি আমার ওষুধের ব্যবস্থা করে দেবেন?” কচি গলায় হাতজোড় করে কাতর প্রার্থনা ছোট্ট মাহির। চোখে জল আনে।

    জানা গিয়েছে, এক বিরল জিনঘটিত অসুখে ভুগছে সাত বছরের মেয়েটি। যার নাম মরকিও সিনড্রোম। বাবা-মায়ের থেকেই এই অসুখ এসে পৌঁছয় সন্তানের শরীরে। অসুখের প্রকোপে শরীরে নানা পরিবর্তন দেখা দিতে থাকে। হাড়ের বৃদ্ধি বন্ধ হয়ে শিরদাঁড়া বেঁকে যেতে থাকে। শিশুরা এই রোগে আক্রান্ত হলে থমকে যায় উচ্চতাবৃদ্ধি। বাড়ে না ওজনও। সেই সঙ্গে শরীর ক্রমশ দুর্বল হয়ে যায়। মাথা শরীরের তুলনায় বড় হয়ে যাওয়ায় দেখতেও অনেকটা বামনের মতো লাগে। নানা জটিলতা এসে ঘিরে ধরে শরীরকে। বিরল এই অসুখ প্রতি ২ লক্ষ জনের একজনের হয়।

    বাবা সুশীল কুমারের সঙ্গে ছোট্ট মেয়ে মাহি বাবা সুশীল কুমারের সঙ্গে ছোট্ট মেয়ে মাহি

    এই সিনড্রোমের কোনও চিকিৎসা এদেশে নেই। ওষুধ আনাতে হয় বিদেশ থেকে। যার খরচ বিপুল। মাহির বাবা সুশীল কুমার মাসে বেতন পান ২৭ হাজার টাকা। এই রোজগারেও মেয়ের চিকিৎসায় ১০ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছেন তিনি। পরে পুলিশ দফতর থেকে আরও ১ লক্ষ টাকাও ঋণ নিতে হয়েছে। কিন্তু মাহিকে সারিয়ে তুলতে হলে প্রয়োজন আড়াই কোটি টাকার! জাহাজে বিদেশ থেকে আনতে হবে ওষুধ। তবেই দিল্লির এইমসে ভর্তি করে আদরের মেয়ের চিকিৎসা করতে পারবেন সুশীল। কিন্তু তাঁর মত মধ্যবিত্তের কাছে এতো টাকা জোগাড় রীতিমতো অসাধ্য। এবার তাই প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ সুশীলের পরিবার।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: