হোম /খবর /দেশ /
অনুব্রতর জামিনের আর্জি খারিজ করল আদালত! কেষ্টকে দিল্লি আনার সম্ভাবনা বাড়ছে?

Anubrata Mandal: অনুব্রতর জামিনের আর্জি খারিজ করল আদালত! কেষ্টকে দিল্লি আনার সম্ভাবনা বাড়ছে?

অনুব্রত মণ্ডল

অনুব্রত মণ্ডল

Anubrata Mandal: ইডির বক্তব্য, দিল্লিতে আনা ঠেকাতে একাধিক আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। তাঁর আইনজীবীও দিল্লি হাইকোর্টের পাশাপাশি রউজ এভিনিউ আদালতে মামলা করেছেন। ইডি মনে করছে, রউজ এভিনিউ আদালত জামিনের আবেদন খারিজ করে দেওয়ায় প্রথম বাধা কাটল।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

নয়াদিল্লি : গরু পাচার মামলায় তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডলের জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল দিল্লির রউজ অ্যাভিনিউ আদালত। দুমাস আগে গ্রেফতার করলেও এখনও পর্যন্ত অনুব্রত মণ্ডলের নামে চার্জশিট পেশ করতে পারেনি ইডি। সেই যুক্তিতে জামিনের আবেদন করেন তিনি। জামিনের আবেদন খারিজ হওয়ায় তাঁকে দিল্লিতে এনে জেরা করার ব্যাপারে আশাবাদী ইডি। তবে এ ব্যাপারে দিল্লি হাইকোর্টের রায়ের অপেক্ষায় রয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

ইডির বক্তব্য, দিল্লিতে আনা ঠেকাতে একাধিক আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। তাঁর আইনজীবীও দিল্লি হাইকোর্টের পাশাপাশি রউজ এভিনিউ আদালতে মামলা করেছেন। ইডি মনে করছে, রউজ এভিনিউ আদালত জামিনের আবেদন খারিজ করে দেওয়ায় প্রথম বাধা কাটল। এবার অপেক্ষা দ্বিতীয় বাধা কাটার অর্থাৎ হাই কোর্টের রায়ের। এদিন জামিনের আবেদন বলা হয়, গরু পাচার মামলায় গ্রেফতারির ৬০ দিন পরেও চার্জশিট দাখিল করেনি ইডি।

অন্যদিকে, আবারও দিল্লি হাইকোর্টে পিছিয়ে গিয়েছে অনুব্রত মামলার শুনানি। এই মামলার পরবর্তী শুনানি কবে তা এখনও জানা যায়নি। তবে মামলার শুনানি পিছিয়ে যাওয়ায় স্বাভাবিক ভাবেই অনুব্রত মণ্ডলের দিল্লি যাওয়া পিছিয়ে গেল। এখন ফের আসানসোল জেলেই থাকছেন বীরভূমের নেতা।

গরুপাচার মামলায় এই মুহূর্তে আসানসোল জেলে রয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। ইডির পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছিল, গরুপাচার মামলায় অনুব্রত মণ্ডলকে দিল্লি নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় তারা। ইডির আবেদনে সাড়া দিয়ে অনুব্রতকে দিল্লিতে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছিল রাউজ অ্যাভিনিউ কোর্ট। তারপরেই অনুব্রত মণ্ডল মামলা করেন দিল্লি হাই কোর্টে। তবে ডিসেম্বরেও এই মামলার শুনানি পিছিয়ে গিয়েছিল। ফলত বঙ্গেই রয়ে গিয়েছেন অনুব্রত।

মঙ্গলবার সকালে ওই মামলার শুনানি থাকলেও বিচারপতি দীনেশ কুমার শর্মার অনুপস্থিতির কারণে মামলার শুনানি সম্ভব হয়নি। পরে মামলাটি ওঠে বিচারপতি জসমিত সিংয়ের এজলাসে। সেখানেই আজ বুধবার রাউজ অ্যাভিনিউ আদালতে শুনানি রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। তারপর মামলাটি আগামী ২ ফেব্রুয়ারি শুনানির জন্য দিন ধার্য হয়। অনুব্রতর গ্রেফতারির পর বীরভূম জুড়ে তল্লাশি চালিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। মামলার তদন্তে নেমে অনুব্রতর কন্যা সুকন্যাকেও একাধিকবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ইডি। আসানসোল আদালত তারপর রাউজ অ্যাভিনিউ আদালত। এবং তারও পরে অনুব্রত মণ্ডলের মামলা গড়িয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট পর্যন্ত।

রাজীব চক্রবর্তী

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Anubrata Mandal, ED