• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ‘দেশের প্রতিটি কোণা থেকে অনুপ্রবেশকারীদের তাড়াব’, অমিত শাহের দাবি কি সারা দেশ জুড়ে NRC চালুর ইঙ্গিত?

‘দেশের প্রতিটি কোণা থেকে অনুপ্রবেশকারীদের তাড়াব’, অমিত শাহের দাবি কি সারা দেশ জুড়ে NRC চালুর ইঙ্গিত?

মোট ৩৮টি বিল পেশ হয়েছিল সংসদে যার মধ্যে দুই কক্ষেই পাশ হয়েছে ২৮টি বিল -যা গত ১০ বছরে সর্বোচ্চ।

মোট ৩৮টি বিল পেশ হয়েছিল সংসদে যার মধ্যে দুই কক্ষেই পাশ হয়েছে ২৮টি বিল -যা গত ১০ বছরে সর্বোচ্চ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: লোকসভা নির্বাচন শেষ হওয়ার পর ফের আরও একবার অনুপ্রবেশ ইস্যু নিয়ে হুঁশিয়রি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ৷ দেশের কোণা কোণা থেকে অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করে তাড়ানোর হুমকি দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৷ এর সঙ্গে সঙ্গেই যে সম্ভাবনা ও প্রশ্ন মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে তা হল তাহলে কি এবার অসমের মতোই সারা দেশেই NRC চালু করতে চলেছে কেন্দ্র?

    অসমের পর গোটা দেশ জুড়েই সারা দেশে এনআরসি চালুর দাবি বরাবরই জানিয়ে আসছে বিজেপি সরকার ৷ বুধবার রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের গলায় শোনা গেল একই দাবি ৷ অনুপ্রবেশ বিতারণ ইস্যুতে তিনি এদিন বলেন, ‘দেশের প্রতিটি ইঞ্চি প্রতিটি কোণা থেকে অনুপ্রবেশকারীদের খুঁজে বের করে চিহ্নিত করা হবে ৷ তাদের দেশ থেকে তাড়ানো হবে৷’ একইসঙ্গে শাহ জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক আইন মেনেই অনুপ্রবেশকারীদের দেশ থেকে তাড়াবে সরকার ৷ অমিত শাহের সুরে লোকসভাই একই দাবি রাজনাথ সিংয়ের ৷ তিনি বলেন, দেশে অবৈধভাবে থাকছেন যারা তাদের ফেরত পাঠানো হবে ৷

    ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেন্স অর্থাৎ NRC মানে এটি রাজ‍্যের বৈধ নাগরিকদের তালিকা ৷ প্রথমবার এই তালিকা তৈরি হয় ১৯৫১ সালে ৷ ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে এই তালিকা নবীকরণের কাজ শুরু হয় ৷ ১৯৭১ সালের ২৪ মার্চের আগে অসমে আসা ব্যক্তি ও তাঁদের বংশধরদের নামই এনআরসিতে উঠবে বলে জানানো হয় ৷ ২০১৫ সালে এনআরসি নবীকরণের কাজ শুরু হয় ৷ কয়েক দফায় তারিখ পিছোনোর পরে ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর প্রথম খসড়া প্রকাশিত হয় ৷ দ্বিতীয় খসড়া তালিকা প্রকাশিত হয় ৩০ জুলাই, ২০১৮ ৷

    এই দ্বিতীয় তালিকায় ৪০ লক্ষের নাম ওঠেনি। আফগানিস্তান, ইরাক বা সিরিয়ার মতো গৃহযুদ্ধ নেই। অথচ, কলমের খোঁচায় আচমকাই নাগরিকত্ব হারানোর মুখে ৪০ লক্ষ মানুষ। অসমের খসড়া নাগরিকপঞ্জি-তে ৪০ লাখ মানুষের নামের পাশে লালকালির দাগ ৷ নাগরিক পঞ্জিতে নাম তোলার জন্য আবেদন করেন ৩ কোটি ২৯ লক্ষ মানুষ ৷ তালিকায় প্রকাশিত হয়েছে ২ কোটি ৮৯ লক্ষ মানুষের নাম ৷ বাকিরা যাবেন কোথায়? ঘিরে ধরছে অনিশ্চয়তা আর দেশছাড়া হওয়ার আশঙ্কা। অসমে পয়লা অগস্ট আসতে চলেছে চুড়ান্ত এনআরসি তালিকা ৷

    First published: