• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ইয়েদুরাপ্পা সরে দাঁড়ানোর পর এবার কর্ণাটক সরকারের ভবিষ্যৎ কী ?

ইয়েদুরাপ্পা সরে দাঁড়ানোর পর এবার কর্ণাটক সরকারের ভবিষ্যৎ কী ?

Yehdyurappa

Yehdyurappa

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: প্রায় সপ্তাহব্যাপী নাটক শেষে ফের চমক । তড়িঘড়ি শপথ নিয়েও হল না শেষ রক্ষা । ভারতের সবচেয়ে কম সময়ের সরকারের নজির গড়ে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা ইয়েদুরাপ্পার। আস্থাভোটের আগেই পর্যাপ্ত সমর্থন নেই বুঝেই অবশেষে যাবতীয় জল্পনার অবসান ঘটিয়ে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিলেন ইয়েদুরাপ্পা ৷

    এবার প্রশ্ন হল কী হবে কর্ণাটক বিধানসভায়। স্বভাবতই ইয়েদুরাপ্পার পদত্যাগের পর বিজেপির সরকার গড়ার স্বপ্ন ধুয়েমুছে সাফ। জোট হিসেবে এরপর সরকার গড়ার ডাক পাবে কংগ্রেস-জেডিএস । কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের প্রস্তাব অনুযায়ী কংগ্রেস-জেডিএস জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রীত্ব করবেন জেডিএসের কুমারস্বামী, দেবগৌড়া পুত্র ।

    ইয়েদুরাপ্পার পদত্যাগ পত্র জমা পড়ার পরই রাজ্যপাল বাজুভাই ভাল্লার কাছে সরকার গড়ার আবেদন জানাবে কংগ্রেস-জেডিএস জোট । রাজ্যপালের আহবান পেলেই কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন কুমারস্বামী । সেক্ষেত্রে বিধানসভা দাঁড়িয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিতে হবে কংগ্রেস জোটের সরকারকে।

    ২২৩ আসনের কর্ণাটক বিধানসভায় ম্যাজিক ফিগার ১১৩ । রাজনৈতিক মহলের হিসেবে কংগ্রেস, জেডিএস, নির্দল ও বিএসপি বিধায়ক মিলে প্রায় ১১৭টি আসন রয়েছে জোট সরকারের কাছে । সেক্ষেত্রে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় সমর্থন পেতে কোনও কষ্টই করতে হবে না কংগ্রেস-জেডিএসকে । কর্ণাটক সরকারের ভবিষ্যৎ এবার কংগ্রেস জোটের সরকার । তবে কবে নাগাদ এই সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া শেষ হয় এখন সেটাই দেখার ।

    কর্ণাটক বিধানসভার ফলাফল ত্রিশঙ্কু হওয়ায় বৃহত্তম দল হিসাবে বিজেপিকে (মোট প্রাপ্ত আসন ১০৪, সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে দরকার ১১২) ৷ ম্যাজিক ফিগার পেতে দরকার ছিল আরও ৮টি আসন ৷ সেই মতই ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছনোর আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে ছিল বিজেপি ৷ প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ব্যর্থ হওয়াতেই আস্থা ভোটের আগেই ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা ৷

    First published: