Home /News /nadia /
Nadia Fraud Case : মা-ছেলের তৈরি প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে সর্বস্বান্ত অসংখ্য যুবক যুবতী

Nadia Fraud Case : মা-ছেলের তৈরি প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে সর্বস্বান্ত অসংখ্য যুবক যুবতী

অভিযোগ উঠল নদিয়ার চাকদহের এক মা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে

অভিযোগ উঠল নদিয়ার চাকদহের এক মা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে

Nadia Fraud Case : চাকরি দেওয়ার নাম করে মোটা অংকের টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একাধিকবার

  • Share this:

    নদিয়া : বর্তমানে লকডাউনের পর থেকেই দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা টালমাটাল । কোভিড মহামারির কারণে দু বছর সরকারি বিধি নিষেধ চলেছিল দেশের বিভিন্ন রাজ্যে । চাকরি খুইয়েছেন প্রায় লক্ষাধিক মানুষ । ছোট থেকে বড় সব ধরনের ব্যবসা কোনও না কোনও ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা যায় । এই কঠিন সময়ে বেকারত্বের জ্বালা থেকে মুক্তি পেতে বহু মানুষ খুঁজছেন উপার্জনের উপায় । আর সেই সমস্ত বেকার যুবক-যুবতীরা চাকরির জন্য অনেক সময়ই ফাঁদে পা দিয়ে ফেলছেন প্রতারকদের কাছে । চাকরি দেওয়ার নাম করে মোটা অংকের টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একাধিকবার ।

    ঠিক তেমনই এক অভিযোগ উঠল নদিয়ার চাকদহের এক মা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে । অভিযোগ, স্বাস্থ্য দফতরে গ্রুপ ডি পদে চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রতারণা মা ও তার ছেলের । তদন্তে নেমে পুলিশ অভিযুক্ত দু’জনকে গ্রেফতার করে । অভিযোগ, মুর্শিদাবাদের শক্তিপুরের যুবক সমীরণ ঘোষ ২০২১ সালে কয়েক দফায় প্রায় সাড়ে চার লক্ষ টাকা দেন চাকরির জন্য ।

    এর পর বিশ্বাস অর্জনের জন্য নিয়োগপত্র থেকে শুরু করে পরিচয়পত্র-সব নথিপত্র ওই যুবককে দেওয়া হয় এবং তিন মাস নদিয়ার কল্যাণী জওহরলাল নেহরু হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজে ট্রেনিং করানো হয় ।

    আরও পড়ুন : মা আসছেন, অতিমারি কাটিয়ে কুমোরপাড়ায় সাজো সাজো রবে ফের মূর্তি তৈরির প্রস্তুতি

    কাজে স্থায়ী নিয়োগের নাম করে দীর্ঘদিন ধরে ঘোরানো হচ্ছিল এমনটাই অভিযোগ অভিযোগকারীর । এর পর সমস্ত নথিপত্রগুলি স্বাস্থ্য দফতরে নিয়ে যাওয়া হলে সেখান থেকে জানানো হয় পুরোটাই ভুয়ো । এর পরই তারা প্রতারণার অভিযোগ তুলে চারজনের বিরুদ্ধে কল্যাণী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন । তদন্তে নেমে কল্যাণী থানার পুলিশ অভিযুক্ত অনিতা সরকার ও তার ছেলে হিমাচল সরকারকে গ্রেপ্তার করে । অভিযুক্তদের বাড়ি চাকদহ থানার চরসরাটি এলাকায়।

    আরও পড়ুন : কেমন পুরুষ পছন্দ করেন মেয়েরা? জীবনসঙ্গীর মধ্যে কোন গুণ খোঁজেন রহস্যময়ী নারী?

    তবে এর পাশাপাশি প্রশ্ন উঠছে এই ভুয়ো নিয়োগপত্র নিয়ে কী করে কল্যাণী জওহরলাল নেহরু মেমোরিয়াল হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজে ট্রেনিং করানো হল । যদিও এ বিষয়ে মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ জানিয়েছেন, অভিযোগ পেলে তা খতিয়ে দেখা হবে ।

    ( Mainak Debnath)
    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Fraud Case, Nadia

    পরবর্তী খবর