Home /News /malda /
Malda News: আর্থিক অনটন থেকে অবসাদ! মেয়েকে নিয়ে চলন্ত ট্রেনের সামনে মায়ের মরণঝাঁপ

Malda News: আর্থিক অনটন থেকে অবসাদ! মেয়েকে নিয়ে চলন্ত ট্রেনের সামনে মায়ের মরণঝাঁপ

আর্থিক অনটনের জেরে আত্মঘাতী মহিলা

আর্থিক অনটনের জেরে আত্মঘাতী মহিলা

Malda News: স্বামীর মৃত্যুর পরেই আর্থিক অনটনের জেরবার স্ত্রী। এক মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতে শুরু করেন স্বামীর মৃত্যুর পর। দীর্ঘদিন আর্থিক অনটনের জেরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই মহিলা।

  • Share this:

    #মালদহ: স্বামীর মৃত্যুর পরেই আর্থিক অনটনের জেরবার স্ত্রী। এক মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতে শুরু করেন স্বামী মৃত্যুর পর। দীর্ঘদিন আর্থিক অনটনের জেরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই মহিলা। মানসিক অবসাদের জেরেই মেয়েকে নিয়ে চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে অনুমান। মঙ্গলবার দুপুরে রেললাইনের ধার থেকে ক্ষতবিক্ষত দুটি দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এদিন ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে মালদহের কালিয়াচক থানার সুলতানগঞ্জ রেলগেট সংলগ্ন এলাকায়। পুলিশের তরফ থেকে মৃতার পরিবারের লোকেদের খবর দিলে ঘটনাস্থলে ছুটে এসে মৃতদেহ দুটি চিহ্নিত করেন। তারপরেই পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

    পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত মহিলার নাম কাজল ঘোষ (২৫), মৃত মেয়ের নাম প্রীতিকা ঘোষ (৯)। গত আট বছর আগে স্বামী দীনেশ ঘোষ দুর্ঘটনায় মারা যান। কাজল ঘোষ এর শ্বশুর বাড়ি ছিল পুরাতন মালদহের নারায়ণপুর এলাকায়। স্বামী মারা যাবার পর কাজল ঘোষ কোলের মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ি বৈষ্ণবনগর থানার ভবানীপুরে চলে আসে। বাবা গৌর ঘোষ পেশায় দিনমজুর। স্বামী মারা যাবার পর কাজল ঘোষ বেশ কিছু টাকা পেয়েছিলেন। কয়েক বছর সেই টাকাতেই সংসার চলছিল। সেই টাকা শেষ হতেই বাবার বাড়ির অভাবী সংসারে দিন যাপন করতে চরম সমস্যায় পড়তে হচ্ছিল মহিলাকে। কোলের মেয়ের পড়াশোনা ভরণপোষণ সমস্ত কিছুই সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছিল। পরিবারে লোকেদের অভিযোগ তার জেরে বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই মহিলা। সোমবার রাতে খাওয়া দাওয়ার পর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় মেয়েকে নিয়ে। পরিবারের লোকেরা কিছুই জানতেন না। সকালে পরিবারের লোকেরা খোঁজাখুঁজি শুরু করে। দুপুর নাগাদ পুলিশ মারফত খবর পায় কালিয়াচক সুলতানগঞ্জ এলাকায় রেললাইনের ধারে দু'টি দেহ পড়ে রয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে ছুটে গিয়ে মা ও মেয়ের দেহ দুটি শনাক্ত করেন পরিবারের লোকেরা।

    পরিবারের লোকেদের দাবি, মানসিক অবসাদের জেরে চলন্ত ট্রেনের সামনে মেয়েকে নিয়ে ঝাঁপ দিয়েছেন ওই মহিলা। তারজেরে মৃত্যু হয়েছে। মৃতার এক আত্মীয় অখিল ঘোষ বলেন, আর্থিক অনটনের জেরে বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। বাবা দিনমজুর। স্বামী মারা যাবার পর সেখানেই থাকতো। টাকা পয়সা না থাকায় সংসার চালাতে সমস্যা হচ্ছিল। সোমবার রাতে হঠাৎ বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। মঙ্গলবার আমরা পুলিশের মারফত জানতে পারি মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। আমাদের প্রাথমিক অনুমান চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।যদিও পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

    হরষিত সিংহ 

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Malda, Malda News, Suicide

    পরবর্তী খবর